২২, এপ্রিল, ২০২১, বৃহস্পতিবার | | ১০ রমজান ১৪৪২

দুমকি পবিপ্রবিতে স্বাধীনতা ভাস্কর্য ‘জয়বাংলা’

আপডেট: মে ২৩, ২০১৯

দুমকি পবিপ্রবিতে  স্বাধীনতা ভাস্কর্য ‘জয়বাংলা’

সোহাগ হোসেন দুমকি (পটুয়খালী) প্রতিনিধি\ মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে জাগ্রত করতে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ‌্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে নির্মিত হয়েছে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি ভাস্কর্য ‘জয়বাংলা’। ২০১১ সালে নির্মিত এ ভাস্কর্যটি তৎকালীন বিশ্ববিদ‌্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়রাম‌্যান প্রভেসর নজরুল ইসলাম আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেছিলেন। পবিপ্রবি’র পরিকল্পনা বিভাগের পরিচালক আবদুল মোতালেব খান জানান, প্রকৌশল বিভাগের তত্ত্ববধানে প্রশাসনিক ভাবনের সামনে মহান মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি স্মরণে এ ভাস্কর্যটি নির্মান করা হয়েছে। মূল ভিত্তির ওপর সম্পূর্ণ ষ্টেইনলেস ষ্টীলের সামনে উঁচু দু’হাতে যুদ্ধের পতাকা, কাধে বেয়নেটসহ রাইফেল ঝুলানো একজন মুক্তিযোদ্ধার প্রতিকৃতি ভাস্কর্যটির নকসা একেছেন দেশের স্বনামধন‌্য ভাস্কর ও ঢাকা বিশ্ববিদ‌্যালয়ের স্থাপত‌্য বিভাগের চেয়ারম‌্যান প্রফেসর মো: হামিদুজ্জামান খান। স্বাধীনতা ভাস্কর্য নির্মাণ প্রসঙ্গে পবিপ্রবি’র উপচার্য প্রফেসর ড. মো: হারুনর রশীদ তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ‘মুক্তিযেোদ্ধারা দেশ ও জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। তাদের ঋণ কখনোই শোধ করা সম্ভব নয়। মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা আমাদের জাতির জন‌্য সবচেয়ে গৌরব ও তঐতিহ‌্যময় অধ‌্যায়। মুক্তিযুদ্ধ, মুক্তিযোদ্দা ও তাদের অবদান স্বরণেই বিশ্ববিদ‌্যালয় ক‌্যাম্পাসে আমরা স্বাধীনতা ভাস্কর্যটি নির্মাণ করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, জীবনের মায়া ত‌্যাগ করে দেশের মুক্তির জন‌্য ঝাপিয়ে পড়েছিল আমাদের বীর সন্তানরা। কিন্তু সেই মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস অনেক সময়ই বিকৃত করার চেষ্টা করা হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানানো ও স্মরন করিয়ে দিতেই এ মুক্তিযোদ্ধা ভাস্কর্যটি নির্মাণ করা হয়েছে। মহান মুক্তিযুদ্ধের গৌরবোজ্জল ইতিহাসের নিরব স্বাক্ষী জয়বাংলা ভাস্কর্যটি বর্তমান ও ভবিষ‌্যৎ প্রজন্মের চেতানা জাগ্রত করবে।