৭, আগস্ট, ২০২০, শুক্রবার | | ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

পা দিয়ে লিখেই প্রতিবন্ধী ছাত্রীর স্বপ্ন পূরণের প্রত্যাশা

আপডেট: নভেম্বর ২১, ২০১৮

পা দিয়ে লিখেই প্রতিবন্ধী ছাত্রীর স্বপ্ন পূরণের প্রত্যাশা

আপন আর্য্য, শামসুল হক কলেজ,কালিহাতী, টাঙ্গাইল : “ইচ্ছে থাকলে উপায় হয়” তবে সেটি যদি হয়
স্বদইচ্ছা-ইচ্ছা কে লালন করেই পা দিয়ে
লিখেই স্বপ্নপূরণের প্রত্যাশা পূরণে চেষ্টা
চালিয়ে যাচ্ছে টাঙ্গাইলের মুন্নী।
সরজমিনে, টাঙ্গাইল জেলার দেলদুয়ার
উপজেলার বাউসাইদ গ্রামের সিএনজি চালক
ইউনুস মিয়ার মেয়ে মুন্নি আক্তার। পা দিয়ে
লিখেই স্বপ্ন পূরণের প্রত্যাশা নিয়ে
প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে
সে।
তার এমন প্রতিভা তাক লাগিয়েছে অন্যান্য
পরীক্ষার্থীদের। শিক্ষকরাও তার
পড়াশোনার প্রতি এমন আগ্রহ দেখে ধন্যবাদ
জানিয়েছেন ক্ষুদে এই শিক্ষার্থীকে। মুন্নী
শশীনারা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের
ছাত্রী। অনেকটাই মনের জোরেই পরীক্ষা
দিচ্ছে সে।
জানা যায়, পা দিয়ে লিখেই লেখাপড়াসহ
যাবতীয় কাজকর্ম চলে মুন্নী আক্তারের।
এবার সে উপজেলার লাউহাটি উচ্চ বিদ্যালয়
পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রাথমিক সমাপনী
পরীক্ষা দিচ্ছে। দুই ভাইবোনের মধ্যে সে
ছোট। জন্ম থেকেই দুটি হাত নেই তার। হাত
না থাকলেও তার অদম্য প্রচেষ্টায় পা দিয়েই
চলে খাওয়া-দাওয়া লেখাপড়াসহ যাবতীয়
কাজকর্ম।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এম এ জলিল বলেন,
পা দিয়ে লিখেই মুন্নী কৃতিত্বের সঙ্গে
পাঁচটি ক্লাস অতিক্রম করেছে। পরীক্ষা
কেন্দ্রে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইউসুফ
হোসেন জানান, পা দিয়ে লিখলেও মুন্নীর
লেখাগুলো সুন্দর ও পরিচ্ছন্ন।