৭, আগস্ট, ২০২০, শুক্রবার | | ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

সাভারের শাহীবাগ-চাপাইন সড়কের বেহাল দশা

আপডেট: মে ২৭, ২০১৯

সাভারের শাহীবাগ-চাপাইন সড়কের বেহাল দশা

সানোয়ার, সাভার// সাভার পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের নিউ মার্কেট সংলগ্ন শাহিবাগ -চাপাইন -দেওগা সড়কটি দীর্ঘদিন মেরামত বা সংস্কার না করার কারণে মানুষ ও যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। অধিকাংশ জায়গায় সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্ত ও ড্যানেজ। অব্যবস্থাপনার কারণে হালকা বৃষ্টি রাস্তায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি করে।দীর্ঘ ৬-৭ বছর ধরে এ ভাঙা সড়ক দিয়েই এলাকার মানুষ চলাচল করছে বাধ্য হয়ে। সড়কটি মেরামতের জন্য একাধিকবার পৌর কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলেও সংস্কারের কোনো উদ্যোগ নেওয়া হয়নি।
ফলে অধিকাংশ সময় অটো ও রিক্সা দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। বিশেষ করে নারী ও শিশুরা মারাত্মক ভাবে আহত হয়।এই ব্যস্ত সড়কটিকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে অনেক মাদ্রাসা, স্কুল, কলেজ, বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠান। প্রতিদিন শত শত শিক্ষার্থীকে কাঁদা ও জলাবদ্ধতা মাড়িয়ে বিদ্যালয়ে় যাতায়াত করতে হয়। এমনিভাবে শাহীবাগ, ডগরমোড়ার বাসিন্দাদেরকেও নিয়মিত এই রাস্তায় যাতায়াত করতে হয়। একদিকে কাঁদা ও জলাবদ্ধতা অন্যদিকে খারাপ রাস্তার অজুহাতে অটো ও অটোরিকশা চালকদের অতিরিক্ত ভাড়া জনজীবনকে অতিষ্ঠ করে তুলেছে।
শাহীবাগ অঞ্চল অবস্থানরত বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘সারা বাংলাদেশের উন্নয়নের ছোঁয়া লাগলেও এ রাস্তাটি বরাবরের মতই অবহেলিত ও বঞ্চিত রয়েছে এবং এটি সংস্কারের ব্যাপারে অজানা কারণে পৌর কর্তৃপক্ষ উদাসীন।’
পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থী আদিবা তাসনিম বলেন, ‘বৃষ্টির দিনে স্কুলে যেতে অনেক কষ্ট হয়, তারপরও স্কুলে যেতে হয়।’
একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী আব্দুন নূর বলেন, ‘বৃষ্টির দিনে পঁচা, দুর্গন্ধ, ময়লাযুক্ত হাঁটু পানি মারিয়ে কলেজে আসতে হয়। যা অত্যন্ত কষ্টকর এবং এই পানি শরীরে ক্ষতিকর রোগের সৃষ্টি করে।’
উল্লেখ্য এই রাস্তাটি শাহবাগ- চাপাইন-দেওগা সহ ৩-৪ গ্রামের মানুষের যাতায়াতের প্রধানতম পথ।