১৬, জুলাই, ২০২০, বৃহস্পতিবার | | ২৫ জ্বিলকদ ১৪৪১

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলায় সড়ক নির্মাণে ব্যাপক অনিয়ম

আপডেট: জুন ১৭, ২০১৯

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলায় সড়ক নির্মাণে ব্যাপক অনিয়ম

পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধি মোঃ সাইফুল ইসলাম: পটুয়াখালীর বাউফলে পৃথক পাঁচটি প্রকল্পের সড়কের নির্মাণ কাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
দুর্যোগ ও ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের অর্থায়নে ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে বাউফল উপজেলায় ৫টি সড়ক এইচবিবি (হেরিংবন) করা হয়। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নির্মাণকাজ তদারকির দায়িত্বে ছিলেন।
অভিযোগ রয়েছে, জুন মাসকে কেন্দ্র করে তড়িঘড়ি নিম্নমানের ইট দিয়ে প্রতিটি সড়ক নির্মাণ করা হয়। 
সিডিউল অনুযায়ী কাজ না করায় অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। ফেসবুক মেসেঞ্জারে নাম প্রকাশ না করার শর্তে কেশবপুর ও কালাইয়া ইউনিয়নের কয়েকজন ব্যক্তি নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে নির্মিত সড়ক নিয়ে সংবাদ প্রকাশের অনুরোধ করেছেন। 
কালাইয়া লঞ্চঘাট কেবল হাউস রোড থেকে বীর মুক্তিযোদ্ধা দানেশ মিয়া জিরো পয়েন্ট অভিমুখী পর্যন্ত ১০০০ মিটার কাঁচা সড়ক ইট দিয়ে এইচবিবি করা হয়। এই প্রকল্পটির দরপত্র মূল্য ৪১,১৩,২৭৬ টাকা।
কেশবপুর ইউনিয়নের হাজি বাড়ি থেকে বুড়ির ব্রিজ হয়ে আলী হোসেন খান বাড়ি এবং সূর্যমণি ইউনিয়নের হারুন মেম্বার বাড়ি থেকে রামনগর জাকির খলিফা বাড়ি পর্যন্ত মোট ১২০০ মিটার কাঁচা সড়ক এইচবিবি করা হয়। এ প্রকল্পটির দরপত্র মূল্য ৫১,৪১,৭০৪ টাকা।  
সরেজমিন পরিদর্শনকালে ওই দুটি প্রকল্পে নিম্নমানের ইট ব্যবহারের অভিযোগ পাওয়া যায়। এ ছাড়াও অন্য তিনটি প্রকল্পেও নিম্মমানের উপকরণ ব্যবহার করে সড়ক নির্মাণ করা হয়েছে। 
বর্তমানে প্রত্যেক ঠিকাদার চুড়ান্ত বিল নেয়ার জন্য ভাউচার উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কাছে জমা দিয়েছেন। 
নির্মাণ কাজ তদারকির দায়িত্বে থাকা উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রাজীব বিশ্বাস বলেন, সিডিউল অনুযায়ী প্রতিটি প্রকল্পের কাজ হয়েছে। নির্মাণকাজে নিম্মমানের উপকরণ ব্যবহার করা হয়নি।