১৭, নভেম্বর, ২০১৯, রোববার | | ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

মাকে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা অস্ত্রের মুখে মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষণ

আপডেট: জুন ২২, ২০১৯

মাকে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা অস্ত্রের মুখে মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষণ

মোহাম্মদ সাদ্দাম হোসেন মুন্নাঃসিদ্ধিরগঞ্জ নয়াআটি ১২২ নং বাড়িতে এঘটনা ঘটে। গভির  রাতে ঘরে ঢুকে মাকে  গলা কেটে হত্যা চষ্টা মেয়েকে ধর্ষণ করার ঘটনা ঘটেছে।ধর্ষক সাগর নওগাঁ উপজেলার কুসুম্বা ইউনিয়নের চকশ্যামরা গ্রামের জান মোহাম্মদের ছেলে।

ধর্ষিতার বাবা এমদাদুল হক জানায়. আমি নৈশ প্রহরীর কাজ করি,সে কারনে আমার স্ত্রী ও মেয়ে রাতে বাসায় থাকে। শুক্রবার রাতে মোবাইল ফোনের মাধ্যেমে আমি আমার স্ত্রী সাথী আক্তারের  গলাকেটে হত্যার চেষ্টার পাই।

ধর্ষিতা সাথী আক্তারের মেয়ের সাথে তার মেয়ের ও ধর্ষক সাগরের সাথে প্রেমের সর্ম্পক ছিল বলে জানিয়েছে আশেপাশে লোকজন। সম্প্রতি তাদের প্রেমের সর্ম্পকের বিভেদ ঘটায়  ধর্ষক গভীর রাতে ছাদ দিয়ে ঘরে ঢুকে। ধর্ষিতা সাথী ও তার মেয়ে একই রুমে ঘুমিয়া।পরে মেয়ে  রীমা আক্তার ও সাগর রুমে কথা বলার সময় তার মা ঘুম থেকে জেগে গেলে ধর্ষক সাগর তার হাতে থাকা ছুরি দিয়ে এলোপাথারি আঘাত করতে থাকে ও পরে গলা কেটে হত্যা করে।

ধর্ষক সাগর সাথী আক্তারকে গলাকেটে হত্যার চেষ্টার করার পর রিমা আক্তারকে ভয়ে দেখিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়।