২৭, নভেম্বর, ২০২০, শুক্রবার | | ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

কলাপাড়ায় নাবালিকা শিশু ধর্ষনে ক্ষুব্ধ পিতার মামলা

আপডেট: জুন ৩০, ২০১৯

কলাপাড়ায় নাবালিকা শিশু ধর্ষনে ক্ষুব্ধ পিতার মামলা

রাসেল কবির মুরাদ , কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি ঃ কলাপাড়ায় ডালবুগঞ্জ ইউনিয়নের রমজানপুর গ্রামে জঙ্গলে নিয়ে নাবালিকা শিশুকে ধর্ষনের ঘটনায় মামলা হয়েছে। শনিবার ২৯ জুন রাতে নির্যাতনের শিকার শিশুর পিতা রুহুল আমিন বাদী হয়ে একই গ্রামের আনোয়ার সরদারের ছেলে শাহীন সরদার (৩০) কে আসামী করে এ মামলা দায়ের করেন।

উল্লেখ্য, গত ২৬ জুন বিকালে মায়ের জন্য পান সুপারি ও ভেঙ্গে যাওয়া মোবাইলের ডিসপ্লে ঠিক করতে রমজানপুর গ্রাম থেকে পাশ্ববর্তী তেগাছিয়া বাজারে যায় ওই কিশোরী। সন্ধার দিকে বাসায় ফেরার পথে রমজানপুর গ্রামের আনোয়ার সরদারের ছেলে শাহীন সরদার (৩০) তার মুখ চেপে ধরে রাস্তা থেকে কিছু দূরে জঙ্গলে নিয়ে জোড়পূর্বক ধর্ষন করে। এসময় শিশুর ডাকচিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে শাহীন পালিয়ে যায়। রক্তাক্ত অবস্থায় কিশোরীকে প্রথমে বাসায় নিয়ে যায় গ্রামবাসীরা। কিন্তু তার রক্তক্ষরণ বন্ধ না হলে রাত দেড়টায় তাকে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

নির্যাতনের শিকার শিশুর ভগ্নিপতি জহিরুল ইসলাম জানান, শিশুটি ঠিক মতো খেতেও পারছে না। মুখ চেপে নিয়ে যাওয়ায় মুখে ক্ষত সৃষ্টি হয়েছে। এবং এ ঘটনার পর সে চরম আতংকে রয়েছে। মানুষ দেখলেই আৎকে উঠছে। এ ঘটনায় শিশুটির বাবা-মাও ভেঙ্গে পড়েছে।

পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের তত্বাবধায়ক জিয়াউল করিম সাংবাদিকদের জানান, হাসপাতালে ভিকটিমের সকল পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। তার শারিরীক অবস্থা কিছুটা উন্নতির দিকে। দু’একদিনের মধ্যেই এ সংক্রান্ত রিপোর্ট পেশ করা হবে।