১৩, জুলাই, ২০২০, সোমবার | | ২২ জ্বিলকদ ১৪৪১

ঠাকুরগাঁওয়ে নৈশ্য প্রহরীকে বেঁধে অর্ধ কোটি টাকার মাছ ডাকাতি

আপডেট: আগস্ট ৭, ২০১৯

ঠাকুরগাঁওয়ে নৈশ্য প্রহরীকে বেঁধে অর্ধ কোটি টাকার মাছ ডাকাতি

মোঃ ইলিয়াস আলী, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে দুই নৈশ্য প্রহরীকে অস্ত্রের মুখে গাছের সঙ্গে বেঁধে তিনটি পুকুর থেকে প্রায় অর্ধ কোটি টাকার মাছ তুলে নিয়ে গেছে ২৫-২৬ জন ডাকাত।

বুধবার (৭ আগস্ট) ভোর রাত ৩টার দিকে উপজেলার বড়বাড়ী ইউনিয়নের পল্লী বিদ্যুৎ সাব-স্টেশন সংলগ্ন তীরনই নদীর পার্শ্বে অবস্থিত বাবর বহুমুখী মৎস্য খামার অ্যান্ড হ্যাচারিতে এ ঘটনা ঘটে।

বাবর বহুমুখী মৎস্য খামার অ্যান্ড হ্যাচারির পরিচালক আলহাজ মো. বাবর আলী জানান, স্থানীয় লোকজন  ভোরবেলা আমাদের মুঠোফোনে খবর দিলে হ্যাচারিতে গিয়ে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় নৈশ্য প্রহরী কালাম হোসেন ও সামশুল হককে উদ্ধার করি। ডাকাতের সদস্যরা  পুকুরে চাষকৃত ‘মা’ মাছসহ বিক্রয় যোগ্য ৫০ লাখ টাকার মাছ এবং নৈশ্য প্রহরী কালাম হোসেনের একটি মুঠোফোন নিয়ে গেছে।
নৈশ্য প্রহরী কালাম হোসেন ও সামশুল হক জানান, গভীর রাতে একদল হাফ প্যান্ট পরা ডাকাত অস্ত্রের মুখে আমাদের গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখে। দুইজন গলায় ছুরি ধরেছিল। ২৫-২৬ জন জাল দিয়ে তিনটি পুকুর থেকে মাছ তুলে নিয়ে যায়।

বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি মোসাব্বেরুল হক জানান, সকাল ৯টা পর আমি ঠাকুরগাঁও চলে এসেছি। মাছ ছুরির ঘটনায় হ্যাচারির মালিক সকাল ৯টার মধ্যে থানায় কোনো লিখিত অভিযোগ জমা দেননি। এছাড়াও বাকি তিন চুরির ঘটনায় তদন্ত অব্যাহত রয়েছে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য, এর আগেও গত রবিবার (৪ আগস্ট) রাতে বালিয়াডাঙ্গী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, বালিয়াডাঙ্গী রিসোর্স সেন্টার এবং সমিরউদ্দিন স্মৃতি ডিগ্রি কলেজে দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটে। সমিরউদ্দিন স্মৃতি ডিগ্রি কলেজের সিসি ক্যামেরার ফুটেজে স্পষ্ট চোরদের চেহারা দেখা গেলেও পুলিশ এখন পর্যন্ত তাদের পরিচয় শনাক্ত করতে পারেনি। পুলিশ বলছে আসামিদের চিহ্নিতসহ গ্রেফতার করতে পুলিশ অভিযান অব্যাহত রেখেছে।