২৩, অক্টোবর, ২০১৯, বুধবার | | ২৩ সফর ১৪৪১

প্রভাষকের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে শিক্ষার্থীরা

আপডেট: আগস্ট ২৬, ২০১৯

প্রভাষকের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে শিক্ষার্থীরা

আসাদ হোসেন রিফাত,লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ  
লালমনিরহাটের বুড়িমারী মহাসড়কে কাকিনা উত্তরবাংলা কলেজের ইংরেজী বিভাগের প্রভাষক এস তাবাস্মুম মুস্তাযীর  তামান্না, প্রভাষকের মা আমেনা শিরীন মুসতাযীর ও জমির বর্গাদার (চাষি) জহরুল ইসলাম ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে শিক্ষার্থীরা।  সোমবার (২৬ আগষ্ট)  দুপুরে ঘন্টা ব্যাপী শতাধিক শিক্ষার্থী  লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়কের কাকিনা হাফিজ চত্বরে এ মানববন্ধন কর্মবিরতি পালন করে।
বিক্ষোভ মিছিল শেষে মানববন্ধনে উত্তরবাংলা কলেজের ইংরেজী বিভাগের অনার্স চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী সোহেল রানার সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন, অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী  শামসুজ্জামান চৌধুরী, উচ্চ মাধ্যমিক প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী সামিউল ইসলাম সানি, সম্মান তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী শাকিল আহমেদ, অনার্স তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী শাহিনুর রহমান, অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ওবায়দুল কাদের, অনার্স প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী আতাউর রহমান, অনার্স চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মোস্তাফিজুর রহমান প্রমূখ।          

মানববন্ধনে বক্তরা বলেন, তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে আমাদের অন্ত:সত্বা শিক্ষিকার ওপর সন্ত্রাসীদের হামলার ঘটনায় অবিলম্বে আসামীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

উল্লেখ্য,  গত বৃহস্পতিবার সকালে লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার কাশিরাম গ্রামে জমির সীমানা পিলার ভেঙ্গে ফেলার প্রতিবাদ করায় প্রতিপক্ষের হামলায় অন্ত:সত্বা প্রভাষক এস তাবাস্মুম মুস্তাযীর  তামান্নাসহ তিনজন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গত শুক্রবার রাতে কালীগঞ্জ থানায় একই উপজেলার শ্রীখাতা গ্রামের মৃত: আজিজার রহমানের ছেলে বর্গচাষী জহরুল ইসলাম বাদী হয়ে একই গ্রামের সাত জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ এ মামলায় শনিবার ভোরে এজাহার নামীয় দুই আসামীকে গ্রেপ্তার করে। 

কালীগঞ্জ থানার ওসির দায়িত্বে থাকা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ফরহাদ মন্ডল বলেন, উক্ত ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে, তদন্ত চলছে, আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।