১৬, সেপ্টেম্বর, ২০১৯, সোমবার | | ১৬ মুহররম ১৪৪১

চকরিয়া কলেজের ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করা তিন জনে গ্রেফতার

আপডেট: আগস্ট ২৯, ২০১৯

চকরিয়া কলেজের ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করা তিন জনে গ্রেফতার

উমর ফারুক আজাদ//চকরিয়া   // চকরিয়ায় উত্ত্যক্ত করার সময় সম্ভ্রম ও জীবন বাঁচাতে সিএনজি অটোরিক্সা থেকে কলেজছাত্রীর লাফ দেওয়ার ঘটনায় জড়িত মূলহোতা অটোচালকসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় ছাত্রীর বাবা মোজাম্মেল হক বাদী হয়ে চারজনের নাম উল্লেখ করে আজ বুধবার বিকেলে থানায় মামলা রুজু করে। এজাহারনামীয় অপর আসামীকে গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন-সিএনজি অটোরিক্সা চালক ও কাকারা ইউনিয়নের বটতলী গ্রামের মৃত মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে কবির হোসেন (৩৫), মাঝেরফাঁড়ি স্টেশন এলাকার বশির আহমদের ছেলে রাজমেস্ত্রী মিনার উদ্দিন জিকু (২৮) ও সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পাড়ার মৃত সিরাজুল ইসলামের ছেলে মিনারুল ইসলাম মিনার (২৩)। এছাড়া পলাতক রয়েছে আলী হোসেন নামের এজাহারভুক্ত অপর আসামী।  চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ভারপ্রাপ্ত) এ কে এম শফিকুল আলম চৌধুরী বলেন, ‘উত্ত্যক্তের সময় অটোরিক্সা থেকে কলেজছাত্রী শামশুন্নাহার মুন্নির লাফ দেওয়ার ঘটনায় জড়িত চারজনের নাম উল্লেখ করে থানায় লিখিত এজাহার দেয় বাবা মোজাম্মেল হক। তন্মধ্যে প্রধান আসামীসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য আসামীকেও গ্রেপ্তার করা হবে শীঘ্রই।’ প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার চকরিয়া সরকারি কলেজে ছুটি শেষে চকরিয়া পৌরশহরের চিরিঙ্গা থেকে অটোরিক্সায় করে বাড়ি ফিরছিল পূর্ব কাকারা পাহাড়তলী গ্রামের মোজাম্মেল হকের কন্যা ও একাদশ প্রথমবর্ষের শিক্ষার্থী শামশুন্নাহার মুন্নি। কিন্তু পথিমধ্যে অটোর ভেতর থাকা বখাটেরা চালকের সহায়তায় ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করতে থাকলে অবস্থা বেগতিক দেখে ওই ছাত্রী চলন্ত অবস্থায় অটো থেকে লাফ দেয়। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। ঘটনার পর অটো ফেলে চালক ও যাত্রীবেশে বখাটেরা পালিয়ে যায়।