২৭, অক্টোবর, ২০২০, মঙ্গলবার | | ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ঠাকুরগাঁওয়ে গৃহবধূ হত্যা মামলার আসামি ইউপি সদস্য গ্রেফতার

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৯

ঠাকুরগাঁওয়ে গৃহবধূ হত্যা মামলার আসামি ইউপি সদস্য গ্রেফতার


 মোঃ ইলিয়াস আলী, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ
ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায় অনিতা ঘোষ (৩৫) নামে এক গৃহবধূর হত্যা মামালার প্রধান আসামি রুহিয়া ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলম (৫০) গ্রেফতার হয়েছে।

বুধবার (৪ সেপ্টেম্বর) ভোরে পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারী উপজেলার তোড়েয়া ইউনিয়ন থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। আটককৃত জাহাঙ্গীর আলম ঘনিমহেশপুর গ্রামের মৃত খাশির উদ্দীন মাস্টারের ছেলে।
রুহিয়া থানার ওসি তদন্ত বাবলু কুমার রায় জানান, ঘনিমহেশপুর খ্রিস্টান মিশনপাড়া গ্রামের বাবলু ঘোষের সঙ্গে প্রতিবেশী সাবেক ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলমের মধ্যে জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলছিল। গত বছরের ৫ নভেম্বর সকালে জমিজমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে অনিতা ঘোষ এবং আসামি লিলি বেগমের মধ্যে বাক বিতণ্ডা শুরু হয়। খবর পেয়ে সকাল জাহাঙ্গীর আলম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে সংঘর্ষ সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে জাহাঙ্গীর মেম্বার বাঁশের লাঠি নিয়ে অনিতা ঘোষের মাথায় সজোরে আঘাত করলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। প্রত্যক্ষদর্শীরা তাকে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় অনিতা ঘোষ মারা যায়।

এ ঘটনায় নিহত অনিতা ঘোষের স্বামী বাবলু ঘোষ বাদী হয়ে রুহিয়া ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলম ও তার স্ত্রী লিলি বেগমকে আসামি করে রুহিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করে রুহিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ প্রদীপ কুমার রায় বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই পলাতক ছিলেন জাহাঙ্গীর। কোনো জায়গায় তিনি স্থায়ী হয়ে থাকনে না। অবশেষে অনেক কৌশল করে আটোয়ারী উপজেলার তোড়েয়া ইউনিয়ন থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।