১, অক্টোবর, ২০২০, বৃহস্পতিবার | | ১৩ সফর ১৪৪২

বালিয়াডাঙ্গীতে ওসি’র বাড়ীতে চুরি, এলাকাবাসী আতঙ্কিত

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৯

বালিয়াডাঙ্গীতে ওসি’র বাড়ীতে চুরি, এলাকাবাসী আতঙ্কিত


মোঃ ইলিয়াস আলী, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ
আপন দুই ভাই বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে ওসি হিসেবে কর্মরত রয়েছে। সবুর মিয়া দিনাজপুর সদর পিবিআই’র ওসি ও বাবুল মিয়া ঢাকা মহানগর জেলা পুলিশের ডিবির ওসি। তাদের পৈত্রিক নিবাসে চুরির ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে এলাকায় আতংক বিরাজ করছে। 
রবিবার ৮ সেপ্টেম্বর অনুমানিক রাত ১ টায় ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার বড়পলাশবাড়ী ইউনিয়নের গড়িয়ালী গ্রামে চুরি হয়। বাড়ীর কেয়ার টেকার (বড় আম্মা) আমেনা বিবি জানান, আমি ঘুমিয়ে পরি। গভীর রাতে চোরেরা আমার ঘরের স্টিলের দরজার হুক খুলে ভিতরের দরজা দিয়ে দুটি ঘরের মালামাল চুরি করে নিয়ে যায়। 
চুরি হওয়া কক্ষের মালিক বর্তমানে দিনাজপুর সদর পিবিআই’র ওসি সবুর মিয়া জানান, চোরেরা পুর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী এবং আকস্মিক ভাবে এ চুরি সংঘটিত করেছে।আমার দুটি রুমের দুইটি আলমিরা ভেঙ্গে কিছু নগদ অর্থ, জমির দলিল, প্রয়োজনীয় দামি কাপড় ও অন্যান্য জিনিসপত্রসহ প্রায় দুই লক্ষাধীক টাকার মালামাল নিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে বাড়ির আরেক মালিক ওসি বাবুল মিয়া জানান, আমাদের গ্রামের বাড়ীর চুরির ঘটনাটি পরিকল্পিত। তারা পরিকল্পনা করেই এই কাজটি করেছে৷
এলাকাবাসী জানায়, এলাকায় চুরি ঘটনা বেড়ে গেছে৷ স্থানীয় সাংসদ আলহাজ্ব দবিরুল ইসলামসহ অনেকে বাড়িতে,পুকুরে মাছ চুরি ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও চুরি হয়েছে৷ কিন্তু পুলিশ সাংসদের বাড়িতে চুরি ছাড়া আর অন্য চুরির তথ্য এবং চোরদের ধরতে পারেনি৷ যদি এমপি ও ওসির বাড়িতে চুরি হয় তবে আমাদের বাড়িতে তো চুরি যে কোন সময় হতে পারে৷এজন্য আমরা আতঙ্কিত৷
এ বিষয়ে বালিয়াডাঙ্গী থানার এসআই হাবিব জানান, ঘটনাস্থল পরির্দশন করে এর প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে। সেখান থেকে চোরদের ফেলে যাওয়া একটি লৌহার অস্ত্র জব্দ করা হয়েছে। জমা-জমি ভাগাভাগি নিয়ে তাদের পারিবারিক কোন্দল রয়েছে বলে স্থানীয়সুত্রে জানতে পারি। তবে এখনও আমরা লিখিত অভিযোগ পাইনি৷