১২, আগস্ট, ২০২০, বুধবার | | ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

পবিপ্রবি’র সৌন্দর্য বর্ধণে নির্মিত হচ্ছে ফোয়ারা

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৯

পবিপ্রবি’র সৌন্দর্য বর্ধণে নির্মিত হচ্ছে ফোয়ারা

সোহাগ হোসেন দুমকি (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি\ সবুজের শ্যামল ছায়ায় ঘেরা অনাবিল সৌন্দর্যের পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসকে আরও আকর্ষনীয় করতে একটি অত্যাধুনিক প্রযুক্তির পানির ফোয়ারা নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে নির্মিতব্য পানির ফোয়ারাটি হবে ক্যাম্পাসের সৌন্দর্য বর্ধণের তৃতীয় সংযোজন। এর আগে একাডেমিক ভবনের সামনে সুবিশাল লেকের ওপর আর্টিফিশিয়াল ব্রিজ, মহান মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি সংরক্ষণে নির্মাণ করা হয়েছে জয়বাংলা ভাস্কর্য ও বীরশ্রেষ্ঠদের ম্যুড়াল। তৃতীয় সংযোজনের এ ফোয়ারাটি ক্যাম্পাসকে আরও আকর্ষনীয় ও মনমুগ্ধকর পরিবেশের সৃষ্টি হবে।

ক্যাম্পাস সূত্র জানায়, অন্যান্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের পরিবেশের তুলনায় অত্র বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসকে সকলের কাছে দৃষ্টি নন্দনে আকর্ষণীয় করতেই কর্তৃপক্ষ এ ফোয়ারাটি নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছেন। পবিপ্রবি’র প্রকৌশল বিভাগের নিজস্ব পরিকল্পনায় স্বল্প পরিসর ও কম অর্থায়নে এ ফোয়ারাটি নির্মাণ করা হচ্ছে। নির্বাহী প্রকৌশলী মো: ফারুক হোসেন বলেন, সংগৃহিত একাধিক মডেল থেকে বাছাই করে নেয়া পছন্দের ফোয়ারাটির মূল ডিজাইন করেছেন পবিপ্রবি’র সাবেক তত্ত¡াবধায়ক প্রকৌশলী বর্তামান পরিচালক (পরিকল্পনা ও অর্থ) মো: আবদুল মোতালেব খান। কাঙ্খিত ফোয়ারাটি নির্মানে ব্যয় হবে মাত্র ১০লাখ টাকা।

সোমবার সকালে প্রশাসনিক ভবনের কড়িডোরে ইংরেজি ‘ভি’ আকৃতির প্রবেশদ্বারে নির্ধারণকৃত স্থানে ফোয়ারার নির্মাণ কাজের অগ্রগতি পরিদর্শণ কালে উপাচার্য প্রফেসর ড. মো: হারুনর রশীদ সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, নিজস্ব পরিকল্পনার অনুমোদিত নকশায় ফোয়ারাটির নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হলে ক্যাম্পাসের সৌন্দর্য অনেকাংশে বৃদ্ধি পাবে এবং এটি শিক্ষক শিক্ষার্থীসহ সকলের দৃষ্টি নন্দনের একটি অন্যতম ক্ষেত্র হবে।