২৩, অক্টোবর, ২০১৯, বুধবার | | ২৩ সফর ১৪৪১

কালীগঞ্জে সাড়ে ১১টায় স্কুল ছুটি সামান্য বৃষ্টি হলে আসেন না শিক্ষকরা

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯

কালীগঞ্জে সাড়ে ১১টায় স্কুল ছুটি সামান্য বৃষ্টি হলে আসেন না শিক্ষকরা


লালমনিরহাট প্রতিনিধি।।
লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার দুহুলী স্কুলে সোমবার সারাদিনেও ছিলনা  কোন শিক্ষক কর্মচারী। কি কারনে প্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল জানা ছিলনা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোবাশ্বের হোসেনের। ওই স্কুলের শিক্ষকগন নিয়মিত স্কুলে আসেননা। আসলেও পার্শ্ববর্তী বাজারে ক্লাস না নিয়ে আড্ডা, ব্যক্তিগত কারনে যখন, তখন স্কুল ত্যাগ করে ব্যক্তিগত কাজে চলে যাওয়াসহ নানা অনিয়মের একাধিক অভিযোগ রয়েছে স্থানীয় অভিভাবক ও সচেতন মহলের। ফলে শিক্ষার গুনগতমান ও স্বাভাবিক পরিবেশ বিনষ্ট হচ্ছে। শিক্ষকদের অনিয়মিত প্রতিষ্ঠানে আসা ও পাঠদানের কারনে গত কয়েক বছর ধরে ফলাফলে বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। এসব কারনে অভিভাবকরা তাদের ছেলে মেয়েদের অন্যান্য পার্শ্ববর্তী স্কুলে ভর্তি করে দিচ্ছেন। সোমবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় উক্ত প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা ¯কুল মাঠে ও পার্শ্ববর্তী বাজারে ঘুরাফেরা করছে তবে হুদিস মিলেনি কোন শিক্ষকের। এ বিষয়ে প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক এনামুল হক বলেন, শিক্ষকরা অনেকে এসেছে। বৃষ্টির কারনে স্কুলে এসে শিক্ষার্থী না থাকায় ক্লাস ছুটি দিয়ে চলে গেছে।কালিগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোবাশ্বের হোসেন বলেন, কি কারনে স্কুল বন্ধ ছিল, তা আমার জানা নেই। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ বলেন, কোন কারন ছাড়া কোন শিক্ষক বিনা অনুমতিতে সকাল সাড়ে নয়টা থেকে সাড়ে চারটা পর্যন্ত প্রতিষ্ঠান ত্যাগ করতে পারে না। কেউ বিনা অনুমতিতে প্রতিষ্ঠান চলাকালীন সময়ে স্কুল  ত্যাগ করে তার বিরুদ্ধে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।