২৫, অক্টোবর, ২০২০, রোববার | | ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

উল্লাপাড়ায় অরক্ষিত রেলব্রীজ দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছে ট্রেন

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯

উল্লাপাড়ায় অরক্ষিত রেলব্রীজ দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছে ট্রেন

মো: নয়ন হোসাইন (উল্লাপাড়া প্রতিনিধি) :সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলায় অরক্ষিত রেলব্রীজ দিয়ে ঝুকি নিয়ে প্রতিদিন পারাপার হচ্ছে যাত্রীবাহী ট্রেন ও মালগাড়ী। ঝুঁকিপূর্ণ রেলব্রীজের উপর দিয়ে প্রতিদিন থেমে থেমে পরাপার হচ্ছে ঢাকা-রাজশাহী- ঈশ্বরদী-খুলনা রুটের আন্তঃনগর, লোকাল,কলিকাতা এক্সপ্রেস,মালগাড়ীসহ সবগুলো ট্রেন। উল্লাপাড়া উপজেলার শ্যামপুর ও মহিষাখোলার কামারপাড়ায় এ দু’টি রেলব্রীজ ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বলেই ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছে ট্রেনগুলো। প্রায় এক মাস আগে রেল সড়কটির ২৮ ও ২৯ নম্বর রেল ব্রীজটির ক্ষতি দেখা দিয়েছে বলে জানা যায়। এরপর থেকেই চলাচলকারী ট্রেনগুলো গতি কমিয়ে ব্রীজটি পার হচ্ছে। এই রুটে ২০ টির অধিক আন্তঃনগর ও লোকাল ট্রেন চলাচল করে। এই দুটো ব্রিজ পার হওয়ার আগে ট্রেনের ইঞ্জিন থামিয়ে দিয়ে তারপর খুবই ধীর গতিতে পার হচ্ছে বলে জানা যায়। সোমবার বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, ব্রীজ দুটোর দেয়ালে ফাটল ধরেছে। রেল বিভাগ থেকে ক্ষতিগ্রস্থ ব্রীজের নিচে লোহার এ্যাংগেল, কাঠের স্লিপারের ঠেকনা দেওয়া হয়েছে। সেখানে দায়িত্বরত রেল বিভাগের ওয়ম্যান মোঃ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, গত ক’দিনে এ কাজ করা হয়েছে। এরপর থেকে এ রেল পথে চলাচলকারী সবগুলো ট্রেন গতি কমিয়ে ব্রীজটি পার হচ্ছে। সেখানে ব্রীজটির দু’পাশে ট্রেনের গতি সীমা ২০ কিলোমিটার লেখা সাইন বোর্ড লটকানো হয়েছে। তিনি আরো জানান, এ ঠেকনা দেয়ার আগে ট্রেনগুলো থামিয়ে দিয়ে তারপর খুবই কমগতিতে ব্রীজটি পার হয়েছে। জানা গেছে রেল পথে চব্বিশ ঘন্টায় বিভিন্ন গন্তব্যের ১৫টি আন্তঃনগর ট্রেনসহ মালবাহী ট্রেন চলাচল করে থাকে বলে জানা যায়। রেল এর সিরাজগঞ্জ প্রকৌশল বিভাগের সাব এ্যাসিস্টেন্ট ওয়ে কর্মকর্তার বক্তব্য জানতে বিভিন্নভাবে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি।