২২, জানুয়ারী, ২০২০, বুধবার | | ২৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

কলাপাড়া পায়রা বন্দরে ২০ হাজার মেট্রিকটন কয়লা নিয়ে নোঙর করেছে জাহাজ-এমভি ঝিং হাই টং- ৮

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৯

কলাপাড়া পায়রা বন্দরে ২০ হাজার মেট্রিকটন কয়লা নিয়ে নোঙর করেছে জাহাজ-এমভি ঝিং হাই টং- ৮

রাসেল কবির মুরাদ , কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি, ঃ কলাপাড়ার পায়রা বন্দরে এসে ভিড়েছে হংকং এর পতাকাবাহী জাহাজ এমভি ঝিং হাইট টং-৮ নামক ইন্দোনশিয়ার বালিকপানান বন্দর থেকে ২০ হাজার মেট্রিক টন (১৯,৭৯০ মেট্রিক টন) কয়লা নিয়ে। বৃহস্পতিবার জাহাজটি বন্দরে প্রবেশ করে। পায়রা পোর্টের মাধ্যমে পায়রা ১৩২০ মেগাওয়াট তাপ বিদ্যুত কেন্দ্রের বিপিসিএলের টার্মিনালে ভিড়েছে প্রথম কয়লাবাহী জাহাজ।

পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষ জানায়, বিসিপিসিএল’র নির্মানাধীন জেলার কলাপাড়ার ধানখালীতে পায়রা তাপ বিদ্যুত কেন্দ্রের উৎপাদন কাজে এ কয়লা ব্যবহৃত হবে। প্রথম কয়লার জাহাজ আসার খবরে পায়রা পোর্ট ও পায়রা তাপ বিদ্যুত কেন্দ্র এলাকার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে উৎসব মুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। পায়রা বন্দর সুত্রে জানা গেছে, আগামী ২৫ ও ২৬ সেপ্টেম্বরে আরও তিনটি জাহাজ কয়লা নিয়ে পায়রা আসছে। আগামী ১ অক্টোবর থেকে ধারাবাহিকভাবে প্রতিদিন একটি করে কয়লাবাহী জাহাজ আসবে।

পায়রা পোর্ট কর্তৃপক্ষ জানান, বিভিন্ন কোম্পানীর পণ্য সামগ্রী খালাশের জন্য আরও টার্মিনাল নির্মাণের কাজ চলমান রয়েছে। এ কাজে কোরিয়ান পরামর্শক প্রতিষ্ঠান কর্তৃক জেটি, টার্মিনাল. সংযোগ সড়ক এবং আন্ধারমানিক নদীর ওপর সেতু নির্মাণের কার্যক্রম চলছে। এছাড়াও একটি কয়লা টার্মিনাল নির্মাণ প্রকল্প (পিপিপি পদ্ধতিতে) অনুমোদনের চুড়ান্ত পর্যায় রয়েছে বলেও জানান। এই দু’টি টার্মিনাল নির্মাণসহ ক্যাপিটাল ড্রেজিং শেষে ২০২২ সাল নাগাদ পায়রা পুর্ণাঙ্গ সমুদ্র বন্দর হিসেবে আত্মপ্রকাশ করবে। পায়রা বন্দরে প্রথম কয়লাবাহী জাহাজ আসায় পটুয়াখালী জেলা তথা দেশের নাম অরও একবার দেশের ভাবমূর্তি বর্হিবিশ্বে উজ্জল হলো।

পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষের ডিরেক্টর (অপারেশন) ক্যাপ্টেন এসএম শরিফুর রহমান জানান, ২০১৬ সালের ১৩ আগস্ট অত্যাবশ্যকীয় সুবিধার মধ্যে সীমিত পরিসরে পায়রা বন্দরের কার্যক্রম উদ্বোধন করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ পর্যন্ত মোট ৩৪ বিদেশি বাণিজ্যিক জাহাজ অপারেশনাল কার্যক্রম সফলভাবে সম্পন্ন করে।