৩, মার্চ, ২০২১, বুধবার | | ১৯ রজব ১৪৪২

জি কে শামীমকে গুলশান থানায় হস্তান্তর

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯

জি কে শামীমকে গুলশান থানায় হস্তান্তর

মো:আতিকুর রহমান,স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট ঢাকা:র্যাবের হাতে আটক শামীম চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজিরসুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতেআটক এস এম গোলাম কিবরিয়া শামীমওরফে জি কে শামীম ও তার সাতদেহরক্ষীসহ আটজনকে রাজধানীরগুলশান থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।শনিবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৩টারদিকে তাদের গুলশান থানায় হস্তান্তরকরে র্যাব। বিষয়টি নিশ্চিত করেন গুলশান থানার ডিউটি অফিসার উপপরিদর্শক (এসআই) মো.সাদেক। এর আগে শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজধানীর নিকেতনে ৫ নম্বর সড়কের ১৪৪ নম্বর ভবনে শামীমেরকার্যালয় ঘিরে অভিযান চালায়র্যাব। কার্যালয়ের ভেতর থেকেবিদেশি মুদ্রা, মদ, একটি আগ্নেয়াস্ত্র,মাদক, নগদ অর্থ, ২০০ কোটি টাকারএফডিআর চেক উদ্ধার করা হয়। আটককরা হয় আরো সাতজনকে।অভিযানের পর র্যাবের নির্বাহীম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম জানান,শামীমের অস্ত্রের লাইসেন্সথাকলেও অবৈধ ব্যবহারের অভিযোগছিল। তিনি বলেন, সুনির্দিষ্টঅভিযোগের ভিত্তিতে অভিযানচালানো হয়েছে। এখানে তার মায়েরও তার নামে বিপুল পরিমাণ এফডিআরপাওয়া গেছে। তার অস্ত্রের লাইসেন্সথাকলেও অবৈধ ব্যবহারের অভিযোগছিলো। সে সময় র্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ডমিডিয়া উইংয়ের পরিচালক লে.কর্নেল সারওয়ার বিন কাশেম বলেন,সুনির্দিষ্ট ও টেন্ডারবাজির সেঅভিযোগের ভিত্তিতে প্রথমে আমরাতার (জি কে শামীম) বাসা ঘেরাওকরি, সেখান থেকে তার সাতজনদেহরক্ষী, অস্ত্র, শর্টগান ও গুলিউদ্ধার করা হয়। এরপর তাকে সঙ্গেনিয়ে তার অফিসে তল্লাশি চালানোহয়। অভিযানে ১৬৫ কোটি টাকারবেশি এফডিআর চেক পাওয়া যায়। এরমধ্যে ১৪০ কোটি টাকার এফডিআরতার মায়ের নামে, বাকি ২৫ কোটিটাকা তার নামে।