১৫, ডিসেম্বর, ২০১৯, রোববার | | ১৭ রবিউস সানি ১৪৪১

চৌগাছায় হাকিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কর্মী সভা অনুষ্ঠিত

আপডেট: অক্টোবর ১৮, ২০১৯

চৌগাছায় হাকিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কর্মী সভা অনুষ্ঠিত

চৌগাছা প্রতিনিধিঃ যশোরের চৌগাছা উপজেলার হাকিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কর্মী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। হাকিমপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের হলরুমে উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য তসলিমুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান দেবাশীষ মিশ্র জয়।বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম আহবায়ক শরিফুল ইসলাম, আনিচুর রহমান। অনুষ্ঠানে ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক আহবায়ক অহিদুল ইসলাম ইকবালের পরিচালনায় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য আসিফ ইকবল ভূট্ট, নিতাই সরকার, হাফিজুর রহমান, এমএ শাহিন, মাহাবুবুল আলম রিংকু, আসাদুল ইসলাম আসাদ, নুর মোহাম্মদ প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি  উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক দেবাশীষ মিশ্র জয় বক্তব্যের মধ্যে দলীয় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ক্ষুধা ও দারিদ্র মুক্ত বাংলাদেশ বিনির্বানে শেখ হাসিনা পথদ্রষ্টা। রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার বিশ্ব শান্তির দর্শন “জনগণের ক্ষমতায়ন”কে সুদৃঢ় ও সুসংহত করার দৃঢ় অঙ্গীকার নিয়ে জাতির পিতার আদর্শের পতাকাবাহী যুব সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ গৌরব ও ঐতিহ্যের সাথে কাজ করে যাচ্ছে। জনমত সৃষ্টি করতে হবে। উপজেলা সহ সকল ইউনিয়নে যুবলীগকে আরো শক্তিশালী করতে হবে। তিনি বলেন, কর্মীর কাছে গ্রহনযোগ্য না হলে নেতা হওয়া গেলেও নেতা থাকা যায় না। এ জন্য নেতা না হয়ে দলের ম্যানেজার হতে হয়। রাজনীতিতে ম্যানেজ করতে হয়।  বেগম খালেদা জিয়া ছিলেন সোয়া কোটি ভুয়া ভোট তৈরির কারিগর। আর আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের উন্নয়নের রাজনীতি করছেন। তিনি মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছেন। দু:খি মানুষের মূখে হাসি ফুটিয়েছেন। তিনি আরো বলেন – বিশ্বমানবতার মুক্তি দাতা রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা। এই মুহুর্তে বিশ্বে সবচেয়ে প্রাজ্ঞ, দূরদৃষ্টি সম্পন্ন, মানবিক এবং জনকল্যাণ মুখী নেতা। যিনি তার প্রিয় বাংলাদেশকে নিয়ে গেছেন এক অনন্য উচ্চতায়। তার অনন্য নেতৃত্বগুনে বাংলাদেশ আজ বিশ্বে ‘রোল মডেল’। বিশ্বের বিস্ময়। এই বিশ্বে তিনি আজ সবচেয়ে প্রশংসিত নেতা। বিশ্বে তিনি আলোকিত এক অনুকরণীয় ব্যক্তিত্ব। বিশ্বকে শান্তির পথ দেখাচ্ছেন।
উক্ত অনুষ্ঠানে উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক শরিফুল ইসলাম বলেন, একবিংশ শতাব্দীতে বিশ্বে যখন অর্থনৈতিক সংকটের আশংকা, তখন ত্রানকর্তা রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা, আশার আলো বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন। একবিংশ শতাব্দীতে বিশ্বে যখন সন্ত্রাসবাদ, জঙ্গীবাদ এবং উগ্রমৌলবাদের বিষবাম্প-তখন এ থেকে মুক্তির পথপ্রদর্শক রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা, জঙ্গীবাদ মোকাবেলার সফল রাষ্ট্র বাংলাদেশ। একবিংশ শতাব্দীতে যখন ক্ষুধার্ত মানুষের আর্তনাদ হাহাকার নতুন করে বাড়ছে, তখন ক্ষুধামুক্ত বিশ্বের আকাংখার একমাত্র ভরসাস্থল রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা, ক্ষুধা যে দেশে হয়েছে নিরুদ্দেশ তার নাম বাংলাদেশ। ২০১১ সালে যুবলীগের চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ‘রাষ্ট্রনায়ক’ উপাধায় ভূষিত করেছিল।
যুগ্ম আহবায়ক আনিচুর রহমান বলেন, ২০১৬ জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা যেভাবে বিশ্বসভাকে আলোকিত করেছেন, বিশ্ব সমস্যার সমাধানের পথ দেখিয়েছেন, যেভাবে ‘বাংলাদেশ’ বিশ্বে্ সমন্বিত ও টেকসই উন্নয়নের ‘মডেল’ হিসেবে ব্রান্ডিং হয়েছে, তাতে আজ বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনাকে- ‘বিশ্বমানবতার মুক্তিদাতা, বিশ্ব নেতা’ অভিধায় ভূষিত করতে চায়। কারণ- বিশ্ব আজ অবাক বিস্ময়ে বাংলাদেশের সাফল্যে তাকিয়ে রয়।