১৬, জুলাই, ২০২০, বৃহস্পতিবার | | ২৫ জ্বিলকদ ১৪৪১

যারা শান্ত সাতক্ষীরাকে অশান্ত করে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করেছে তাদের ক্ষমা করা হবে না

আপডেট: নভেম্বর ৩, ২০১৯

যারা শান্ত সাতক্ষীরাকে অশান্ত করে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করেছে তাদের ক্ষমা করা হবে না


শেখ হাসানুর রহমানঃসাতক্ষীরা সদর উপজেলার ফিংড়ী ইউনিয়নের শিমুলবাড়িয়ায় কবরবাসীদের স্বরণে, রূহের মাগফিরাতের জন্য ২২তম বার্ষিক ওয়াজ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত (১নভেম্বর)শুক্রবার রাতে শিমুলবাড়িয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানা কমপ্লেক্স ময়দানে এন.আই (নজরুল ইসলাম) যুব ফাউন্ডেশনের আয়োজনে ফিংড়ী ইউপি চেয়ারম্যান মো. সামছুর রহমানের সভাপতিত্বে বার্ষিক ওয়াজ মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা জেলা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো. নজরুল ইসলাম। এসময় তিনি বলেন, ইসলাম শান্তির ধর্ম। মানুষের মাঝে সঠিক শান্তির বাণী তুলে ধরলে দেশ থেকে অশান্তি ও সন্ত্রাস জঙ্গিবাদ দুর হবে। সাতক্ষীরার মানুষ অত্যন্ত শান্তি প্রিয়। যারা শান্ত সাতক্ষীরাকে অশান্ত করে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করেছে তাদের ক্ষমা করা হবে না। তাদের বিচার অবশ্যই হবে। এ জেলার উন্নয়নে সকলকে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। তিনি সকলের কাছে দেশের উন্নয়নের রূপকার বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্থ্যতা ও দীর্ঘায়ু কামনা করেন।বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, জেলা আ’লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আবুল খায়ের সরদার, সাংগঠনিক সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আসাদুজ্জামান বাবু, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এসএম শওকত হোসেন, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু সায়ীদ, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক শাহজাহান আলী, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ও এনআই যুব ফাউন্ডেশনের সভাপতি শেখ মনিরুল হোসেন মাসুম। এসময় অন্যন্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ফিংড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি লুৎফর রহমান, সহ-সভাপতি ও ব্যাংদহা বাজার কমিটির সাধারন সম্পাদক শেখ মোনায়েম হোসেন, সাতক্ষীরা জজ কোর্টের এডিশনাল পিপি অ্যাড. শেখ রায়হান আলী, সদর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক মো. সোহাগ হোসেন, ফিংড়ী ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক শেখ আজমীর হোসেন বাবু, শেখ ফারুক হোসেন, ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান প্রমুখ। বার্ষিক ওয়াজ মাহফিলে প্রধান বক্তা হিসাবে মহাগ্রন্থ আল-কোরান ও হাদিস থেকে আলোচনা করেন আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন মোফাসসিরে কোরান মিডিয়া