২২, এপ্রিল, ২০২১, বৃহস্পতিবার | | ১০ রমজান ১৪৪২

ধামরাইয়ে ৪ টি ইটভাটায় জরিমানা ও বন্ধের নির্দেশ

আপডেট: নভেম্বর ৬, ২০১৯

ধামরাইয়ে ৪ টি ইটভাটায় জরিমানা ও বন্ধের নির্দেশ


এম,এ,হাসান ধামরাই (ঢাকা)
ঢাকার ধামরাইয়ে পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র, জেলা প্রশাসকের লাইসেন্স ছাড়াই অবৈধভাবে ফসলি জমি, বসতবাড়ি ও মহাসড়ক সংলগ্ন এলাকায় ইটভাটা নির্মাণ ও ইট পোড়ানোর অভিযোগে চারটি ইটভাটা গুঁড়িয়ে দিয়েছে পরিবেশ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালত।এ সময় চার ইটভাটা মালিককে  ৪৮ লাখ টাকা জরিমানা করা হয় এবং একই সঙ্গে এসব ভাটার সকল ধরনের কার্যক্রম বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে ভাম্রমান আদালত।
 আজ ৬ নভেম্বর (বুধবার) বিপুলসংখ্যক পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের কর্মীদের নিয়ে ধামরাইয়ের ডাউটিয়া এলাকায় এ অভিযান পরিচালনা করেন পরিবেশ অধিদপ্তরের মনিটরিং অ্যান্ড এনফোর্সমেন্ট উইং এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রকৌশলী কাজী তামজীদ আহমেদ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মাহবুবুর রহমান খানসহ অন্যান্য কর্মকর্তা।
পরিবেশ অধিদপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রকৌশলী কাজী তামজীদ আহমেদ বলেন, অবৈধভাবে ইটভাটা নির্মাণ ও ইট প্রস্তুত করার অভিযোগে ধামরাইয়ের ডাউটিয়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে সোমভাগ ইউপি চেয়ারম্যান আজাহার আলীর আইরিন ব্রিকস, আজাহারুল ইসলাম খানের খান ব্রিকস, কবির হোসেনের ঈগল ব্রিকস ও জহিরুল ইসলামের হোসেন ব্রিকস গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়।
এ সময় চারটি ইটভাটার সকল কার্যক্রম বন্ধ রাখারও নির্দেশ দেওয়া হয়। একই সঙ্গে প্রতিটি ইটভাটা মালিককে ১২ লাখ টাকা করে মোট ৪৮ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রকৌশলী কাজী তামজীদ আহমেদ জানান, ধামরাইয়ে অবৈধভাবে পরিচালিত সকল ইটভাটায় মার্চ মাস পর্যন্ত এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। উল্লেখ্য, ধামরাই উপজেলায় প্রায় দুই শতাধিক ইটভাটা রয়েছে। যার অধিকাংশ ইটভাটার বৈধ কোনো কাগজপত্র নেই।