১৪, আগস্ট, ২০২০, শুক্রবার | | ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

লবন সংকটের গুজব লবন কিনতে দোকানে উপচে পড়া ভীড় দেবীগঞ্জে

আপডেট: নভেম্বর ১৯, ২০১৯

লবন সংকটের গুজব লবন কিনতে দোকানে উপচে পড়া ভীড় দেবীগঞ্জে

কাজী সাইফুল, দেবীগঞ্জ(পঞ্চগড় )থেকে সংবাদদাতা।

দেবীগঞ্জে হঠাৎ করে লবন সংকটের গুজবে লবন কেনতে দোকানগুলোতে উপচে পড়া ভীড় শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুর ১২ টার দিকে দেবীগঞ্জে গুজব শুরু হয় যে লবনের দাম ১০০ টাকা কেজি হবে এবং লবন পাওয়া যাবে না। মহুর্তে এ খবর ছড়িয়ে পড়লে দেবীগঞ্জ বাজার সহ গ্রামাঞ্চলের সব বাজারগুলোতে লবন কিনতে দোকানগুলোতে ভিড় জমে যায়। একেকজন ৫কেজি থেকে ১০ কেজি পর্যন্ত লবন কেনার প্রতিযোগিতায় ব্যস্ত হয়ে উঠে। দোকানদারেরাও এ সুযোগে লবন কেজি প্রতি ৫টাকা থেকে ১০ টাকা বেশি দামে বিক্রয় করছে। দামের দিকে লক্ষ না করে সবাই বেশি করে লবন ক্রয় করছে। বেশি করে লবন ক্রয়ের ব্যাপারে জানতে চাইলে ক্রেতা সবুজ, জয়নাল , আয়নাল বলছে ,লবনের দাম ১০০ টাকা থেকে ২০০টাকা পর্যন্ত বেড়ে যাওয়ার কথা শুনা যাচ্ছে, এ আশংঙ্কা থেকে বেশি করে কিনে নিচ্ছি। ব্যবসায়ীরা জানান, পাইকারী বাজারে দেশি লবনের মূল্য ৪৫ কেজির বস্তা ৮৫০ টাকায় কিনতে হয়েছে। যা আগে ছিল ৫৯০ টাকা। খুচরা বাজারে ২০ টাকা কেজির পরিবর্তে ২৫টাকা বিক্রি করতে হচ্ছে। বাজারে লবন কেনতে ব্যাপক লোকের সমাগম হওয়ায় দোকান লুট হওয়ার ভয়ে দোকানদারেরা দোকান তাড়াহুড়ো করে বন্ধ করে দিয়েছে।

খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রত্যয় হাসান এক প্লাটুন পুলিশ নিয়ে দ্রæত দেবীগঞ্জ বাজারে প্রবেশ করে উপস্থিত জনতাকে বেশি দামে লবন ক্রয় না করার কথা জানান। ইউএনও জানান, দেশে লবনের কোন সংকট নেই, এটি ¯্রফে গুজব । গুজবে কান না দেওয়ার জন্য জনগনকে সর্তক করতে তাৎক্ষনিকভাবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা গোটা শহরে মাইকিং প্রচার শুরু করে দেন। বাজারে পুলিশের টহল চলছে। দেবীগঞ্জের বিভিন্ন বাজারে ইউএনও পুলিশকে নিয়ে টহল অভিযান পরিচালনা করছেন।