২২, অক্টোবর, ২০২০, বৃহস্পতিবার | | ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

খুলনায় আমনের বাম্পার ফলন,কৃষকের মুখে হাসি

আপডেট: ডিসেম্বর ৮, ২০১৮

খুলনায় আমনের বাম্পার ফলন,কৃষকের মুখে হাসি
 খুলনায় নিলয় অধিকারী :
খুলনায় এবার রোপা আমনের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হয়েছে। জেলার ৯ উপজেলা এবং মেট্রো থানায় বাম্পার ফলন হয়েছে ধানের। কৃষকরা মাঠে ধান কাটায় ব্যস্ত। চলতি মাসের শেষ নাগাদ সব ধান কাটা সম্পন্ন হবে বলে জানিয়েছে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।
ধান কাটার এ মৌসুমে শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছে না বলে দাবি করেছেন কৃষকরা। তারা জানান, সরকার আমন ধানের দাম আগে ভাগে নির্ধারণ করে দিলে কৃষক ভালো দাম পাবে। গত কয়েক বছর তারা আমনের ন্যায্যমূল্য পাননি।
কৃষি অধিদফতর খুলনা সূত্রে জানা গেছে, এবার খুলনা জেলায় রোপা-আমন আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৯০ হাজার ১৯২ হেক্টর। অর্জিত হয়েছে ৯২ হাজার ৪২৫ হেক্টর। এরইমধ্যে খুলনা মেট্রোর দৌলতপুরে ৭০ হেক্টরের বিপরীতে ৭৫ হেক্টর ও লবণচরায় ২০০ হেক্টরের বিপরীতে ২০০ হেক্টর, রূপসা উপজেলায় ৩ হাজার ২৮০ হেক্টরের বিপরীতে ৩ হাজার ৭০০ হেক্টর, ডুমুরিয়ায় ১৫ হাজার ৯১২ হেক্টরের বিপরীতে ১৫ হাজার ৭০০ হেক্টর, কয়রায় ১৫ হাজার ৫২৫ হেক্টরের বিপরীতে ১৫ হাজার ৭৭০ হেক্টর, বটিয়াঘাটায় ১ হাজার ৬৪৮ হেক্টরের বিপরীতে ১ হাজার ৭৪০ হেক্টর, তেরখাদায় ৫২০ হেক্টরের বিপরীতে ৫৫০ হেক্টর, দিঘলিয়ায় ১ হাজার ৭৭০ হেক্টরে বিপরীতে ১ হাজার ৭৭০ হেক্টর, পাইকগাছায় ১৭ হাজার ২০ হেক্টরের বিপরীতে ১৭ হাজার ১০০ হেক্টর, দাকোপে ১৮ হাজার ৪০০ হেক্টরের বিপরীতে ১৮ হাজার ৯০০ হেক্টর, ফুলতলায় ১ হাজার ১৫ হেক্টরের বিপরীতে ১ হাজার ২৬০ হেক্টর লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হয়েছে।
ডুমুরিয়া উপজেলার কৃষক হরিচাঁদ বালা বলেন, ধান ভাল হয়েছে। দাম ভাল পেলে লাভ হবে অন্যথায় বিগত বছরের মত খরচ তোলাই কঠিন হবে তাদের জন্য। আবহাওয়া ভাল থাকায় ধান কাটা-মাড়াই কাজ নির্বিঘ্নে করছেন তারা। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর খুলনার উপ-পরিচালক আব্দুল লতিফ বলেন, অধিদপ্তর জেলায় যে লক্ষ্যমাত্র ছিল তা’ অর্জিত হয়েছে। আমনের ফলন খুবই ভাল। আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে সব ধান কাটা শেষ হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।