৫, জুলাই, ২০২০, রোববার | | ১৪ জ্বিলকদ ১৪৪১

এসএটিভি’র সাংবাদিক কর্মচারিদের চাকরি বহালের দাবিতে ডিইউজের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা

আপডেট: ডিসেম্বর ৭, ২০১৯

এসএটিভি’র সাংবাদিক কর্মচারিদের চাকরি বহালের দাবিতে ডিইউজের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা

স্টাফ রিপোর্টার: নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে এসএটিভির সাংবাদিক-কর্মচারীদের চাকরিচ্যুতদের বহালের দাবিতে নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেছে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে)। শনিবার (৭ ডিসেম্বর) গুলশানে এসএটিভি কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে অবস্থান কর্মসূচি শেষে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু জাফর সুর্য ঘোষণা দেন- সোমবার (৯ ডিসেম্বর) বেলা ১১টায় গুলশানে এসএটিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক সালাহউদ্দিন আহমেদের বাসভবন ঘেরাও, বুধবার (১১ ডিসেম্বর) বেলা ১১টায় কাকরাইলে এসএ পরিবহনের প্রধান কার্যালয় ঘেরাও এবং শনিবার (১৪ ডিসেম্বর) এসএটিভিতে লাগাতার কর্মসুচি শুরু করা হবে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত এই কর্মসূচি চলবে বলেও ঘোষণা দেন তিনি। এসময় উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা সাংবাদিক সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী, সহ-সভাপতি খন্দকার মোজাম্মেল হক, যুগ্ম সম্পাদক আকতার হোসেন, কোষাধ্যক্ষ উম্মুল ওয়ারা সুইটি, সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল, ডিআরইউ’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক শুক্কুর আলী শুভ, বিজেসির ট্রাস্টি নুর সাফা জুলহাস, সাব এডিটর কাউন্সিলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, টিসিএ’র সাবেক সভাপতি হারুন অর রশিদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহে আলম জেমস, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ফারুক বিপ্লব এবং এসএ টেলিভিশনের সাংবাদিক কর্মচারীসহ বিভিন্ন টেলিভিশনের সাংবাদিক ও গণমাধ্যকর্মীরা। অবস্থান কর্মসূচিতে অংশ নেয়া সাংবাদিক নেতা অবিলম্বে চাকরিচ্যুতদের বহালসহ নিয়মিত বেতন-ভাতা দেয়ার পাশাপাশি ডিইউজের সঙ্গে করা চুক্তি বাস্তবায়ন করতে এসএ টেলিভিশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সালাহউদ্দিন আহমেদের প্রতি আহ্বান জানান। সেইসঙ্গে সাংবাদিক-কর্মচারীদের কাছে অবাঞ্চিত এবং এসএটিভিতে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির হোতা হিসেবে পরিচিত হেড অব নিউজ মহমুদ আল ফয়সালের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়টি বিবেচনা করতে ডিইউজের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। এছাড়া, দালাল হিসেবে চিহ্নিতদের সংশোধন হতে হুঁশিয়ারি দেন তারা। এরআগে, নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে এসএটিভির ব্রডকাস্ট ও প্রোগ্রাম বিভাগের ১০ কর্মীকে ছাঁটাই এবং ৮ সংবাদকর্মীকে শুধুমাত্র কারণ দর্শানো নোটিশের মাধ্যমে বরখাস্তকৃতদের চাকরিতে বহাল না করায় পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী এসএটিভি কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন- ডিইউজে নেতারা। শনিবার (৭ ডিসেম্বর) বেলা ১১টার দিকে গুলশানে প্রতিষ্ঠানটিতে তালা ঝুলিয়ে অবস্থান কর্মসুচি পালন করছেন তারা। দীর্ঘদিন ধরে চলা এসএটিভিতে বকেয়া বেতন এবং সম্প্রতি সাংবাদিক ও বিভিন্ন বিভাগের কর্মী ছাঁটাইয়ের ইস্যুতে উত্তপ্ত পরিস্থিতি চলছে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ডিইউজে নেতারা বিষয়টির সুরাহার জন্য গেল ৭ অক্টোবর এসএটিভি কর্তৃপক্ষ এবং কর্মীদের সমন্বয়ে একটি ত্রিপক্ষীয় চুক্তি হয়। কিন্তু প্রতিষ্ঠানটির মালিক চুক্তির তোয়াক্কা না করে ছাঁটাই এবং বেতন বকেয়াসহ নানা অনিয়ম নির্যাতন শুরু করেন। এতে আবারো বিক্ষুব্ধ হয়ে পড়েন কর্মীরা। উদ্ভুত পরিস্থিতিতে ডিইউজে নেতারা গত ৩ ডিসেম্বর আলোচনার জন্য প্রতিষ্ঠানটিতে যান। কিন্তু ব্যবস্থাপনা পরিচালক সালাহউদ্দিন আহমেদ নেতাদের সময় দিয়েও আলোচনায় না বসে পরদিন ৪ ডিসেম্বর বিকেলে আলোচনার জন্য ডিইউজে নেতাদের আসতে বলেন। ৪ ডিসেম্বর বুধবার সালাহউদ্দিন আহমেদ আলোচনা হবে না বলে তাদেরকে জানিয়ে দিলে বৃহস্পতিবার অবস্থান কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেন। এরপর শনিবার (৭ ডিসেম্বর) সকাল ১১টার মধ্যে চাকরিচ্যুত ৮ সাংবাদিক ও ১০ কর্মীকে বহাল করা না হলে এসএটিভিতে তালা ঝুলিয়ে দেয়ার ঘোষণা দেয়া হয়। তবে কোনো সমাধান না করে পাল্টা হুমকি দেন সালাহউদ্দিন আহমেদ। এতে পরিস্থিতি আরো ঘোলাটে হয়ে ওঠে। এই ধারাবাহিকতায় গেটে তালা দিয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন সাংবাদিক নেতারা। সেইসঙ্গে হেড অব নিউজ মাহমুদ আল ফয়সালের বিরুদ্ধে মুহুর্মুহু শ্লোগান তোলেন সাংবাদিকরা। অনেকেই ৮ সংবাদকর্মীকে চাকরিচ্যুত করে নিউজরুমে মোরগ পোলাও পার্টি দেয়া হেড অব নিউজ মাহমুদ আল ফয়সালের অপসারণও দাবি করেন। এরইমধ্যে প্রতিষ্ঠানটির ১৫০ জনেরও বেশি গণমাধ্যমকর্মী তার বিরুদ্ধে গণস্বাক্ষর দিয়ে অনাস্থা জানিয়েছেন।