১৪, আগস্ট, ২০২০, শুক্রবার | | ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

প্রভাষক দম্পতিকে কুপিয়ে জখম ও বসতবাড়িতে হামলার ঘটনায় চার আসমী জেল হাজতে

আপডেট: ডিসেম্বর ১৫, ২০১৯

প্রভাষক দম্পতিকে কুপিয়ে জখম ও বসতবাড়িতে হামলার ঘটনায় চার আসমী জেল হাজতে

রাসেল কবির মুরাদ , কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি ঃ কুয়াকাটা খানাবদ কলেজের প্রভাষক ড.শহিদুল ইসলাম শাহিন ও তার স্ত্রী শাহিনুর আক্তারকে কুপিয়ে জখম করাসহ বসতবাড়িতে হামলার ঘটনার মামলায় চার আসমিকে জেল হাজতে প্রেরন কার হয়েছে। বরিবার ওই মামলার আসামি এইচ এম আব্দুর রহিম মুকুল, মো. নাসিম, মো.জাকাররিয়া,মো.নুর আলম খলিফা কলাপাড়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হলে আদলত জামিন না মঞ্জুর করে তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরন করেন।

মামলার বাদী স্ত্রী শাহিনুর আক্তার জানান, তাকে ও তার স্বামীকে কুপিয়ে জখম করা সহ তাদের বসত বাড়িতে হামলার ঘটনায় চার জনকে আসামি করে মামলা কার হয়েছে। ওই আসামিরা আদালতে হজিরা দিতে গেলে বিজ্ঞ আদালত তাদের জামিন না মাঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরন করেছেন।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ৫ সেপ্টেম্বর শুক্রবার বিকালে একদল সন্ত্রাসী তার বসত ঘরে হামালা চালায়। তাদের অস্ত্রের আঘাতে সে ও তার স্ত্রী গুরতর জখম হয়। স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে প্রথমে কুয়াকাটা হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎার জন্য বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়। এ সময় তার তান্ডব চালিয়ে বসত ঘরে আসবাবপত্র ,স্বর্নাংলকার, টাকা পয়সা ও প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র নিয়ে যায়। পারে তার স্ত্রী শাহিনুর আক্তার বাদী হয়ে এইচ এম আব্দুর রহিম মুকুল, মো.নাসিম, মো.জাকাররিয়া,মো.নুর আলম খলিফাকে আসামি করে মহিপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। কুয়াকাটা খানাবদ কলেজের প্রভাষক ড.শহিদুল ইসলাম শাহিন দম্পতির উপর হামলার ঘটনায় বিচারের দাবীতে শিক্ষক শিক্ষার্থীর বেশ কয়েকবার মানববন্ধনও করেছিল।