২৯, অক্টোবর, ২০২০, বৃহস্পতিবার | | ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

বদরুলের বাঁচার আকুতি, প্রয়োজন ১৫ লক্ষ টাকা

আপডেট: জানুয়ারি ২৪, ২০২০

বদরুলের বাঁচার আকুতি, প্রয়োজন ১৫ লক্ষ টাকা

ইবি প্রতিনিধি:
আকাশ ছোঁয়া স্বপ্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন বদরুল আমীন বেঞ্জু। বগুড়া থেকে এসে ভর্তি হন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ২০০৯-১০ শিক্ষাবর্ষে ফলিত পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি বিভাগে।

স্বপ্ন ছিল পড়াশোনা শেষ করে হাল ধরবেন পরিবারের। চিকিৎসা করবেন ক্যান্সার আক্রান্ত মায়ের। মাথার ঘাম পায়ে ফেলে পড়াশোনার অর্থের যোগানদাতা বাবাকে আর ড্রাইভারের সিটে বসতে দেবেন না। কিন্তু আজ অধরা হওয়ার পথে তার এরকম হাজারো স্বপ্ন। মায়ের মত মারণব্যাধীর থাবায় পড়েছেন নিজেও। জিহ্বা ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে বদরুল এখন জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে।

পরিবার সূত্র জানিয়েছে, জিহ্বা ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে বদরুল আমিন বেঞ্জু বর্তমানে বগুড়ার ওলোকা ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ইতোমধ্যে তার জিহ্বার অগ্রভাগের অংশ ড্যামেজ হয়ে গেছে। এই মূহুর্তে তার ক্ষতিগ্রস্থ জিহ্বা কেটে কৃত্রিম জিহ্বা স্থাপন করা প্রয়োজন। এই উন্নত চিকিৎসার জন্য যত দ্রুতসম্ভব তাকে ভারতের টাটা মেমোরিয়াল হাসপাতালে নেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা। এতে চিকিৎসা ব্যয় পড়বে প্রায় ১৫ লক্ষ টাকা।

জানা যায়, বদরুল আমীনের বাড়ি বগুড়ার সবুজবাগে। দুই ভাইবোনের মধ্যে বড় সে। পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি তার বাবা। তিনি পেশায় ড্রাইভার। মা জাহানারা বেগম দীর্ঘদিন যাবৎ ব্রেস্ট ক্যান্সারে ভুগছেন। বদরুলের চিকিৎসার যোগান দেয়ার সামর্থ নেই তাঁর পরিবারের।

বিভাগীয় শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা তার চিকিৎসার আর্থিক সাহায্যে এগিয়ে এসেছেন। তবে আরো টাকা প্রয়োজন বলে জানিয়েছে তার পরিবার ও শিক্ষকরা। এক্ষেত্রে সমাজের বিত্তবানরা সাহয্যের হাত বাড়িয়ে দেন তাহলে হয়ত চিকিৎসা পেয়ে বেঁচে ফিরবে এক মেধাবী প্রাণ।

বদরুল আমীনকে সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা:
অগ্রণী ব্যাংক হিসাব নং: ০২০০০১৪৮৮২২০০
বিকাশ: ০১৭১৬-০৫৩৫৯৭, ০১৭১৬-৩৯৮৮৮০, ০১৬৭৫-৫২৭৬৬৬.