৯, আগস্ট, ২০২০, রোববার | | ১৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

নিকুঞ্জের ভোট কেন্দ্রে সাংবাদিকের উপড় হামলা

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১, ২০২০

নিকুঞ্জের ভোট কেন্দ্রে সাংবাদিকের উপড় হামলা

আসাদ হোসেন রিফাত,ঢাকা থেকেঃ

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের খবর সংগ্রহের সময় অওয়ামীলীগ প্রার্থী ইসহাক মিয়ার সমর্থকদের হাতে মারাত্মকভাবে আহত হয়েছেন সাংবাদিক জিসাদ ইকবাল। তিনি বার্তাসংস্থা প্রেস বাংলা এজেন্সি- পিবিএ’র বিশেষ প্রতিনিধি ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের স্থায়ী সদস্য। ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ১৭ নং ওয়ার্ডে নিকুঞ্জের জান-ই-আলম সরকার উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে সকাল সাড়ে দশটার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

ওই কেন্দ্রে ভোটারদের ফিঙ্গারপ্রিন্ট নেওয়ার পর ভোটারদের বের করে দিয়ে শিশুদের দিয়ে ভোট দেয়ানো হচ্ছিল। এ ঘটনা ক্যামেরাবন্দি করতে গেলে সেখানে আওয়ামী সমর্থিত প্রার্থী ইসহাক মিয়ার সমর্থকরা বাঁধা প্রদান করে। এক পর্যায়ে বার্তা সংস্থা পিবিএ’র বিশেষ প্রতিনিধি জিসাদ ইকবালের ওপর হামলা করে। এতে তিনি মারাত্মকভাবে আহত হন ও তার ক্যামেরা ভাঙচুর করা হয়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত তিনি কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, কেন্দ্রটিতে অন্যান্য মিডিয়া কর্মীদের প্রবেশেও বাঁধা প্রদান করা হচ্ছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা হামলাকারিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিয়ে উল্টো গণমাধ্যম কর্মীদের সেখান থেকে সরে যাবার নির্দেশ দেয়।

ঢাকা উত্তর সিটির রিটার্নিং কর্মকর্তার ঘোষিত সাত শতাধিক ঝুকিপূর্ণকেন্দ্রের একটি হচ্ছে জান-ই-আলম সরকার উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র। কিন্তু আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে বিশেষ কোন ব্যাবস্থা চোখে পড়েনি। বিগত নির্বাচনেও এই কেন্দ্রে গণমাধ্যম কর্মীদের কাজে বাঁধা দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

এ ব্যাপারে অওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী ইসহাক মিয়ার কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি কোন মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানান।

কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার বলেন, আমি কোন অভিযোগ পাইনি পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।