২, এপ্রিল, ২০২০, বৃহস্পতিবার | | ৮ শা'বান ১৪৪১

জেএফসিএল নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে মনোনয়ন পেতে অপতৎপরতা চালাচ্ছে বঙ্গবন্ধুর ছবি অবমাননাকারী শফিকুর রহমান

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০

জেএফসিএল নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে মনোনয়ন পেতে অপতৎপরতা চালাচ্ছে বঙ্গবন্ধুর ছবি অবমাননাকারী শফিকুর রহমান

জামালপুর প্রতিনিধিঃ দেশের বৃহত্তম ইউরিয়া উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান যমুনা সার কারখানা শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়ন (সিবিএ) নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জাতীয় শ্রমিক লীগ সরিষাবাড়ী আঞ্চলিক শাখা একাধিক সভা করেছে। সভায় জাতীয় শ্রমিক লীগ যমুনা সার কারখানা শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়ন নির্বাচনে একটি প্যানেল ঘোষণার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। জাতীয় শ্রমিক লীগের পরীক্ষিত ত্যাগী ও বিএনপি জামায়াত জোট সরকারের সময় নির্যাতিত নেতাদের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে মনোনয়ন দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয় ওই সভায়। কেন্দ্রীয় ও জেলা শ্রমিক লীগও তাদের সমর্থন দিয়েছেন। কিন্তু একটি অশুভ মহল যমুনা সার কারখানা শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়ন (সিবিএ) নির্বাচনে শ্রমিক লীগের প্যানেলে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মনোনয়ন দিতে চান শফিকুর রহমান খোকনকে। শফিকুর রহমান খোকনের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, ২০০১ সালে বিএনপি জামায়াত জোট সরকারের সময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবিতে অগ্নিসংযোগ, ভাংচুরসহ নানা অভিযোগ। শফিকুর রহমান খোকন ও তার ভাই বিএনপি নেতা কামরুজ্জামান টুকনের অত্যাচার নির্যাতনে সার কারখানা এলাকায় আওয়ামী লীগ ও শ্রমিক লীগের নেতা-কর্মীরা টিকতে পারেনি। কারখানায় নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে বনে গেছেন কোটি কোটি টাকার মালিক। আসন্ন নির্বাচনে শ্রমিক লীগের প্যানেলে তাকেই সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মনোনয়ন দেওয়ার পায়তারা করছে একটি অশুভ মহল। এ নিয়ে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে জাতীয় শ্রমিক লীগের নেতা-কর্মী ও সমর্থকদের মাঝে। বঙ্গবন্ধুর ছবি অবমাননাকারী এবং শ্রমিক লীগ, আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের নির্যাতনকারীকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হলে সার কারখানা এলাকায় যে কোনো সময় অপ্রীতিকর ঘটনার আশঙ্কা করছে শ্রমিকরা। বঙ্গবন্ধুর ছবি অবমাননাকারী শফিকুর রহমান খোকনকে সিবিএ’র সাধারণ সম্পাদক পদে দলীয় মনোনয়ন না দিতে আওয়ামী লীগের নীতি নির্ধারকদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন জাতীয় শ্রমিক লীগের নেতা-কর্মীরা। জানা গেছে, গত ৯ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন কমিশন নির্বাচনের তফসিল ও নীতিমালা প্রকাশ করেছেন। আগামী ৪ মার্চ জেএফসিএল শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।