৫, জুলাই, ২০২০, রোববার | | ১৪ জ্বিলকদ ১৪৪১

পাউবোর নাটকীয়তা: রাষ্ট্রীয় ভবন ‘অবসর’ হুমকির মুখে

আপডেট: এপ্রিল ১৬, ২০২০

পাউবোর নাটকীয়তা: রাষ্ট্রীয় ভবন ‘অবসর’ হুমকির মুখে

হাসানুজ্জামান হাসান,লালমনিরহাটঃ 
লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় অবস্থিত তিস্তা ব্যারাজ এলাকায় রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন ‘অবসর’ এর পেছনে বোমা মেশিন দিয়ে পুকুর খনন করা হচ্ছে। এতে শত কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত বিলাসবহুল রাষ্ট্রীয় ওই অতিথি ভবন হুমকির মুখে পড়েছে।
পানি উন্নয়ন বোর্ডের কতিপয় কর্মকর্তার যোগসাজশে বোমা মেশিন দিয়ে এ পুকুর খনন করা হচ্ছে। এ নিয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো)’র একাধিক কর্মকর্তা নাটকীয় বক্তব্য দিয়েছেন।
জানা গেছে, দেশের বৃহত্তম সেচ প্রকল্প তিস্তা ব্যারাজ এলাকায় ওই রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন ‘অবসর’র পেছনে পুকুরটি খননের উদ্যোগ গ্রহণ করে পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো)। অর্ধ কোটি টাকা ব্যয়ে এ পুকুর খননের কাজ বাস্তবায়নের দায়িত্ব পেয়েছেন বেলাল কনষ্ট্রাকশন নামে একটি ঠিকদারী প্রতিষ্ঠান। পাউবো’র কতিপয় কর্মকর্তাকে ম্যানেজ করে সরকারি পরিপত্র না মেনে ২টি বোমা মেশিন দিয়ে পুকুর খননের কাজ করছেন ওই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান।
৫০ থেকে ৬০ ফিট নিচ থেকে অবৈধ বোমা মেশিন দিয়ে পুকুর খননের নামে বালু উত্তোলনের ফলে শত কোটি টাকা ব্যয়ে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন ‘অবসর’ হুমকির মুখে পড়েছে।
এ নিয়ে ওই কাজের দায়িত্বে থাকা পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রকৌশলী হাফিজুর রহমান, পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) ডালিয়া-দোয়ানী’র নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম ও পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো)’র রংপুর বিভাগীয় প্রধান প্রকৌশলী জ্যোতি প্রসাদ ঘোষ নাটকীয় বক্তব্য দিয়েছেন। আর স্থানীয় লোকজন বোমা মেশিন দিয়ে পুকুর খনন কাজ বন্ধ করে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন ‘অবসর’ রক্ষার দাবি করেছেন।
এ বিষয়ে ঠিকাদার আশিক ইমতেয়াজ মনি বলেন, আমি ঠিকাদার হিসেবে বোমা মেশিন দিয়ে পুকুর খনন করছি। পাউবো’র সকল কর্মকর্তাই জানেন। অনিয়ম হচ্ছে কিনা তা পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা ভালো বলতে পারবেন।
ওই কাজের দায়িত্বে থাকা পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রকৌশলী হাফিজুর রহমান বলেন, সরকারি নিয়ম মেনে পুকুর খনন করা হচ্ছে। বোমা মেশিন দিয়ে পুকুর খননের অনুমতি নেই, তারপরও বোমা মেশিন দিয়ে খনন করছেন।
বোমা মেশিন দিয়ে খনন করলে ‘অবসর’র ক্ষতি হবে কি না- এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, আপনি নয় আমি ইঞ্জিনিয়ার, আমি ভালো বলতে পারবো অবসর’র ক্ষতি হবে কি না।
পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) ডালিয়া-দোয়ানী’র নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম বলেন, সংরক্ষিত এলাকার কাজে অনিয়ম হওয়ার সুযোগ নেই। বোমা মেশিন দিয়ে পুকুর খননের অনুমতি আছে কি-না, কাজের দায়িত্বে থাকা প্রকৌশলীর সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।
পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো)’র রংপুর বিভাগীয় প্রধান প্রকৌশলী জ্যোতি প্রসাদ ঘোষ বলেন, ড্রেজার মেশিন দিয়ে খননের নিয়ম রয়েছে। বোমা মেশিন দিয়ে পুকুর খননের নিয়ম নেই। আমি ওই কাজের দায়িত্বে থাকা প্রকৌশলীকে বলে দিচ্ছি, আপনার সাথে দেখা করতে।
লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক আবু জাফর বলেন, বোমা মেশিন দিয়ে পুকুর খননের বিষয়টি অবগত হওয়ার পর সংশ্লিষ্ট কৃর্তপক্ষকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অবগত করা হয়েছে।