২২, অক্টোবর, ২০২০, বৃহস্পতিবার | | ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

কুয়াকাটায় রাখাইন স্কুল ছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষন,ধর্ষক আটক

আপডেট: মে ১৬, ২০২০

কুয়াকাটায় রাখাইন স্কুল ছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষন,ধর্ষক আটক

রাসেল কবির মুরাদ , কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি ঃ কুয়াকাটায় আদিবাসী
রাখাইন কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে আল আমিন (২৩) নামক এক যুবককে শুক্রবার
রাতে আটক করেছে মহিপুর থানা পুলিশ। এঘটনায় রাখাইন কিশোরী লায়েচান (১৫)
বাদী হয়ে মহিপুর থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছে। লায়েচান মহিপুর
কো-অপ্ট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনীর শিক্ষার্থী। ধর্ষণের অভিযোগে
আটক আল আমিনকে শনিবার জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। ডাক্তারী পরিক্ষা শেষে
লায়েচানকে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে।
পুলিশ ও মামলা সুত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার গভীর রাতে কুয়াকাটা সংলগ্ন
লতাচাপলী ইউনিয়নের কালাচান পাড়ার আদিবাসী রাখাইন কিশোরী লায়েচান (১৫) কে
একই ইউনিয়নের নাউরী পাড়া গ্রামের আ: মন্নান মীর এর পুত্র আল আমিন (২৩)
প্রলোভন দেখিয়ে ফুসলিয়ে পার্শ¦বর্তী সাবেক ইউপি সদস্য আবু হানিফ এর মাছের
গদির দোতালায় একটি কক্ষে নিয়ে রাখে। সেখানে কিশোরী লায়েচান কে তার ইচ্ছার
বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে আল আমিন। বৃহস্পতিবার রাতেই লায়েচান এর মা লামো মগনীর
মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে শুক্রবার রাতে আবু হানিফ মেম্বরের মাছের আড়তের
দোতালার ২নং কক্ষ থেকে অসুস্থ্য অবস্থায় লায়েচানকে মহিপুর থানা পুলিশের
এস আই মো: তারেক উদ্ধার করে। কিশোরী লায়েচানের তথ্যমতে প্রযুক্তি
ব্যবহারের মাধ্যমে শুক্রবার মধ্যে রাতে আলীপুর থ্রী-পয়েন্ট থেকে অভিযুক্ত
আল আমিনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
মহিপুর থানার এস আই মোঃ তারেক হাসান জানান, ভিকটিমের মায়ের মৌখিক
অভিযোগের ভিত্তিতে প্রযুক্তি ব্যবহার করে রাখাইন কিশোরী লায়েচানকে
অসুস্থ্য অবস্থায় মাছের গদির দোতোলার ২নং কক্ষ থেকে উদ্ধার করা হয়এবং
ভিকটিমের তথ্য মতে আল আমিনকে গ্রেফতার করে শনিবার আদালতে সোপর্দ করা
হয়েছে। এঘটনায় লায়েচান বাদী হয়ে মহিপুর থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের
করেছে।