৫, জুলাই, ২০২০, রোববার | | ১৪ জ্বিলকদ ১৪৪১

করোনায় চিকিৎসায় ব্ল্যাড ক্যান্সারের ওষুধ প্রয়োগে সাফল্য

আপডেট: জুন ৮, ২০২০

করোনায় চিকিৎসায় ব্ল্যাড ক্যান্সারের ওষুধ প্রয়োগে সাফল্য

কোভিড-নাইনটিন আক্রান্তদের চিকিৎসায় ব্ল্যাড ক্যান্সারের ওষুধ ‘ক্যালকুয়েন্স’ প্রয়োগে সাফল্য পেয়েছে যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে নভেল করোনাভাইরাসের ডিএনএ ভেক্টর ভ্যাকসিন বানাচ্ছে ব্রিটিশ-সুইডিশ ওষুধ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অ্যাস্ট্রজেনেকা। পাশাপাশি,করোনাজনিত কোভিড-১৯ চিকিৎসায় নানা রকম ওষুধের পরীক্ষাও চালাচ্ছে এ জৈবপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান। এ প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব উদ্যোগে ব্লাড ক্যানসারের ওষুধ কোভিড-১৯ রোগীদের ওপর পরীক্ষামূলকভাবে প্রয়োগ করা হয়েছিল। প্রাথমিক ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের ফলাফল ইতিবাচক বলে দাবি করেছে অ্যাস্ট্রজেনেকা।

গত শুক্রবার (৫ জুন) অ্যাস্ট্রজেনেকার ট্রায়ালের প্রতিবেদন ‘সায়েন্স ইমিউনোলজি’ জার্নালে প্রকাশিত হয়।
অ্যাস্ট্রজেনেকার গবেষকরা জানিয়েছেন, ব্লাড ক্যানসারের ওষুধ ‘ক্যালকুয়েন্স’ দেওয়া হয়েছিল কোভিড-১৯ রোগীদের। তাঁদের মধ্যে ১১ জনই ছিলেন ভেন্টিলেটর (কৃত্রিম শ্বাসপ্রশ্বাস ব্যবস্থা) সাপোর্টে। অ্যাস্ট্রজেনেকার দাবি, ‘ক্যালকুয়েন্স’ ওষুধ দেওয়ার পরে দেখা যায়, সংকটাপন্ন রোগীদের শরীরে নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণজনিত শ্বাসকষ্ট ও তীব্র প্রদাহ ধীরে ধীরে কমেছে। করোনায় আক্রান্ত ১১ জনের মধ্যে ৯ জন রোগীই নাকি সংক্রমণ থেকে সেরে উঠেছেন এবং তাঁদের হাসপাতাল থেকে ছেড়েও দেওয়া হয়েছে।

করোনায় বিশ্বজুড়ে প্রাণহানি ৪ লাখ ৫ হাজারেরও বেশি। আক্রান্ত প্রায় ৭১ লাখ। সুস্থ হয়েছেন সাড়ে ৩৪ লাখ। মোট সংক্রমণের ৩০ ভাগই যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে প্রাণহানি ১ লাখ ১০ হাজার ছাড়িয়েছে আর আক্রান্ত প্রায় ২০ লাখ।