২২, এপ্রিল, ২০২১, বৃহস্পতিবার | | ১০ রমজান ১৪৪২

আজকের দিনে শেরপুরে উড়েছিল স্বাধীন বাংলার প্রথম পতাকা

আপডেট: মার্চ ২৩, ২০২১

আজকের দিনে শেরপুরে উড়েছিল স্বাধীন বাংলার প্রথম পতাকা

আজ ২৩ মার্চ। ১৯৭১ সালের এই দিনে শেরপুর শহীদ দারোগ আলী পৌর পার্কে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম পতাকা উড়ানো হয়। পরবর্তীতে ৭ ডিসেম্বর এই পৌর পার্কে ভারতের তৎকালীন সেনাপ্রধান জগজিৎ সিং অরোরা হেলিকাপ্টারযোগে নেমে এসে শেরপুরকে মুক্ত ঘোষণা করেন।

২৩ মার্চ শতশত প্রতিবাদী ছাত্র-জনতা মুহুর্মুহু স্লোগানের মধ্য দিয়ে ছাত্রসংগ্রাম পরিষদের নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশের মানচিত্র খচিত ‘জয়বাংলা’ লেখা সাদা রংয়ের এ পতাকা উত্তোলন করেন। পতাকা উত্তোলনের এ অগ্রনায়করা হলেন-তৎকালীন ছাত্রসংগ্রাম পরিষদ নেতা আমজাদ হোসেন, মোজাম্মেল হক, ফকির আক্তারুজ্জামান, আব্দুল ওয়াদুদ অদু, লুৎফর রহমান মোহন প্রমুখ।

এখনো ওই পতাকাটি বর্তমান সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের সদস্যসচিব ফকির আক্তারুজ্জামানের কাছে ইতিহাসের সাক্ষী হিসেবে সংরক্ষিত রয়েছে। তখন শেরপুরের সংগ্রাম পরিষদের নেতারা বাংলাদেশের পতাকা কেমন হবে তা নিশ্চিত না হলেও স্থানীয়ভাবে নিজেরা ধারণা করেই ওই পতাকাটি তৈরি করেন।

১৯৭১ সালের ৭ মার্চ ঢাকার রেসকোর্স ময়দানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাষণটি ৮ মার্চ রেডিও’র মাধ্যমে শোনার পর থেকেই শেরপুরের সংগ্রামী ছাত্র-জনতা আরও প্রতিবাদী হয়ে ওঠে। সভা-সমাবেশ, মিছিলে-মিটিংয়ে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পুরো শেরপুর এলাকা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, একসময় এ দিনটিতে শেরপুরে পতাকা উত্তোলন দিবস হিসেবে পালন করা হলেও এখন আর তা পালন করা হয় না।

সেক্টর কমান্ডার্স ফোরাম শেরপুর জেলা শাখার সদস্যসচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট ফকির আখারুজ্জামান বলেন, ‘ইতিহাসের সাক্ষী হিসেবে আজও ওই পতাকাটি আমি রেখে দিয়েছি। আগে দিনটি পালন হলেও এখন আর আগের মতো কিছু হয় না। দিনটি শেরপুরে পতাকা উত্তোলন দিবস হিসেবে রাখা প্রয়োজন।’