২১, এপ্রিল, ২০২১, বুধবার | | ৯ রমজান ১৪৪২

নোয়াখালীতে আওয়ামীলীগ ও বিএনপির সংঘর্ষে যুবলীগ কর্মী হানিফ নিহত

আপডেট: ডিসেম্বর ১৪, ২০১৮

নোয়াখালীতে আওয়ামীলীগ ও বিএনপির সংঘর্ষে যুবলীগ কর্মী হানিফ নিহত

মান্নান তালিব (নোয়াখালী সুবর্ণচর) একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নোয়াখালীর সদর উপজেলার এওজবালিয়া ইউনিয়নে প্রতিপক্ষের হামলায় যুবলীগ নেতা  মো: হানিফ নিহত হয়েছে।
মঙ্গলবার (11 নভেম্বর )বিকেল চারটা স্থানীয় নুরু পাটোয়ারি হাট বাজার এলাকায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।নিহত হানিফ এওজবালিয়া ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের মফিজ উল্যাহর ছেলে বলে জানা যায়।এছাড়া সে ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিল।

স্থানীয়রা জানান,  ধানের শীষ প্রতিকের নির্বাচনী উঠান বৈঠক চলাকালীন আওয়ামীলীগ ও অংগসংগঠনের নেতাকর্মীরা  মিছিল নিয়ে বাড়ির নিকট আসলে তাদের উভয়ের মাঝে দাওয়া পাল্টা দাওয়া , ইটপাটকেল ও গুলি বিনিময় হয়।

এ বিষয়ে সন্ধ্যায় নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে নোয়াখালী-৪ আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী বলেন, পাকিস্তানী কায়দায় নারকীয়ভাবে আমার ওয়ার্ড যুবলীগকর্মী হানিফকে হত্যা করা হয়। প্রথমে তাকে ইট দিয়ে পিটিয়ে এবং কুপিয়ে আহত করে বিএনপির সন্ত্রাসীরা পরে তাকে গুলি করে হত্যা করে।

সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন জানান, নুরু পাটোয়ারির হাট এলাকায় বিএনপি ও আওয়ামীলীগের মাঝে একটি সংঘর্ষ হয়েছে এবং এতে একজন নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে । লাশ ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।দোষীদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে ।