২১, জানুয়ারী, ২০২০, মঙ্গলবার | | ২৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

দুমকিতে ঝুঁকি সাঁকো পারাপার

আপডেট: জানুয়ারি ১০, ২০১৯

দুমকিতে ঝুঁকি সাঁকো  পারাপার

সোহাগ হোসেন দুমকি (পটুয়াখালী) প্রতিনিধ:পটুয়াখালী দুমকি উপজেলায় শ্রীরামপুর-মুরাদিয়া ইউনিয়নের মধ্যবর্তি নদীর ওপর বাঁশের সাঁকোতে ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছেন দু’পাড়ের বাসিন্দারা। বিশেষত: স্কুল-মাদ্রাসার ছোট ছোট শিশু কিশোর শিক্ষার্থীদের নিয়মিত এই সোঁকো পারপারের ঝুঁকিতে চিন্তিত অভিভাবকসহ সাধারন মানুষ। উপজেলার দক্ষিণ মুরাদিয়া মহিলা ফাজিল মাদ্রসা ও ২৭নং পশ্চিম মুরাদিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন মুরাদিয়া নদীর ওপর দিয়ে বাঁশের সাঁকোটি নির্মাণ করে দু’পারের মানুষ পারাপার হয়ে আসছে। মাদ্রাসা ও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বেশীর ভাগ ছাত্র-ছাত্রী পশ্চিম পাড়ের হওয়ায় শিক্ষার্থীদের নিত্য পারাপারের জন্য স্থানীয়রা সাঁকোটি নির্মাণ করেন। নদীদে চলাচলকারী নৌ-যাতের স্বাভাবিক যাতায়ত নির্বিঘ্ন করতে উঁচু করে সাঁকোটি নির্মাণ করতে হয়েছে। যা ছোট ছোট শিশু-কিশোর শিক্ষার্থী ও বৃদ্ধ নারী পুরুষের ঝুঁকিতে অত্যন্ত সতর্কাতার সাথে পারাপার হতে হয়। একটু অসতর্কাতায় পা ফসকে পড়ে গেলেই মহা বিপদের সম্মুখীন হতে হয়। এমন মারাত্মাক বুঁকি থাকা স্বত্তেও প্রতিদিন শত শত শিক্ষার্থীকে নিয়মিত সাকোটি পারাপার হতে হয়। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকজন শিক্ষাও পথচারী সাকো পারাপারকালে পা ফসকে পড়ে গিয়ে কম বেশি আহত হয়েছে বলে অভিযোগ আছে।

২৭ নং পশ্চিম মুরাদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষিকা নাজমুন নাহার জানান, সাঁকোর অপর পাড়ে রয়েছে বিদ্যালয়ের বিভিন্ন শ্রেণির শতাধিক শিক্ষার্থী। এখানে ব্রিজ হলে শিক্ষার্থীর সংখ্যা যেমন বৃদ্ধি পেত, তেমনি টিফিনের সময় বাড়ি থেকে সহজে ও কম সময়ের মধ্যে খেয়ে আসতে পারতো। অনেক শিশু ছাত্র বড়দের হাত ধরে পার হওয়ার আশায় সাঁকোর কাছে দারিয়ে থাকে। শ্রীরামপুর ইউনিয়নের মো. ছত্তার মোল্লাসহ অনেকে ক্ষোভের সঙ্গে জানান, জন প্রতিনিধিরা আমাদের বার বার ব্রিজের প্রতিশ্রুতি দিলেও কেউ কথা রাখেনি।

এলাকাবাসীর দাবি, সাঁকোর স্থলে একটি মজবুত পুল তৈরী করা হক। তা হলে তাদের শংকামুক্ত হবে শিশু-কিশোর শিক্ষার্থী সন্তানের পারাপার। এজন্য সরকারের সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করচেন স্থানীয়রা। এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী দিপুল কুমার বিশ্বাস বলেন, বাঁশের সাঁকোর পরিবর্তে আয়রন ব্রিজের জন্য প্রধান প্রকৌশল অধিদপ্তরে কথা বলবো যাতে করে একটি ব্রিজের ব্যবস্থা করা যায়।