১৬, জুলাই, ২০২০, বৃহস্পতিবার | | ২৫ জ্বিলকদ ১৪৪১

খাজুরায় বাসের চাপায় স্কুল ছাত্রী গুরুতর আহত এলাকাবাসীর বিক্ষোভ ও গাড়ি ভাংচুর

আপডেট: জানুয়ারি ১৫, ২০১৯

খাজুরায় বাসের চাপায় স্কুল ছাত্রী গুরুতর আহত এলাকাবাসীর বিক্ষোভ ও গাড়ি ভাংচুর

বাঘারপাড়া (যশোর) প্রতিনিধি : যশোরের খাজুরায় লোকাল বাসের চাপায় ফাহিমা খাতুন নামে সপ্তম শ্রেনীর এক ছাত্রী গুরুতর আহত হয়েছে।  মঙ্গলবার বিকাল ৩টার দিকে যশোর-মাগুরা সড়কের খাজুরা ফিলিং ষ্টেশনের সামনে  এ ঘটনা ঘটে।  আহত স্কুল ছাত্রী সেকেন্দারপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেনীর ছাত্রী ও খাজুরা বাজারের ডাঃ আব্দুল লতিফের মেয়ে। প্রত্যক্ষদর্শী হোটেল ব্যবসায়ী মোশার্রেফ হোসেন বলেন, হেলপার চলন্ত অবস্থায় মেয়েটিকে নামাতে গেলে  পা পিচলে পড়ে যায়। এসময় মেয়েটির দুই পায়ের উরুর উপর দিয়ে বাসের চাকা উঠে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠালে তার অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। এদিকে ঘাতক বাসটিকে আটক করে উত্তেজিত জনতা বাসের ড্রাইভার মাগুরার শালিখা থানার শতখালী গ্রামের ফয়জুল মোল্যার ছেলে শহিদুল ইসলামকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। এসময় বাসের সুপারভাইজার ও হেলপার পালিয়ে যায়।  পরে স্থানীয় এলাকাবাসী যশোর-মাগুরা সড়ক ২ ঘন্টা অবরোধ করে রাখে এবং কয়েকটি গাড়ী ভাংচুর করে। খবর পেয়ে খাজুরা পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে করে। ঘটনার  বিচার ও রাস্তায় স্পীড ব্রেকার দেওয়ার আশ্বাসে উত্তেজিত এলাকাবাসী সড়ক থেকে অবরোধ তুলে নেয়। বর্তমানে বাসটি পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।