১৮, এপ্রিল, ২০২১, রোববার | | ৬ রমজান ১৪৪২

সাফল্যের ২৩ বছর পেরিয়ে বেগম হামিদা সিদ্দিক কলেজিয়েট স্কুল

আপডেট: জানুয়ারি ১৭, ২০১৯

সাফল্যের ২৩ বছর পেরিয়ে বেগম হামিদা সিদ্দিক কলেজিয়েট স্কুল

স্টাফ রিপোর্টার মোঃ আরিফুল ইসলাম: কুষ্টিয়া সদর উপজেলার বড়ীয়া গ্রামে অবস্থিত বেগম হামিদা সিদ্দিক কলেজিয়েট স্কুল। ১৯৯৫ সনে  নির্মিত স্কুল।এ প্রতিষ্ঠানটির নির্মাতা প্রকৌশলী কামরুল ইসলাম সিদ্দিক। ২৩টি বছর পার করে উন্নত মানের শিক্ষা প্রসারে অনেক সফলতা অর্জন করে আসছে। বিদ্যালয়ে বর্তমানে মাধ্যমিক ও কারিগরি শাখায় প্রায় ১২০০ শতাধিক শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত। প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকে আজ পর্যন্ত এই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষাসহ দেশের বিভিন্ন কর্মক্ষেত্রে সাফল্য ও মেধার স্বাক্ষর রেখেছে।বিদ্যালয়টি বরিয়া গ্রামের প্রান কেন্দ্রে মনোরম পরিবেশে অবস্থিত। বিদ্যালয়টির অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলো নৈতিকতা সম্পর্কিত শিক্ষাদানেরর পরিবেশ বজায় রাখা। তাছাড়া বিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীরা খেলাধুলা, বিভিন্ন সহপাঠ্যক্রমিক কার্যক্রমে সমানভাবে পারদর্শী। 
   এ প্রতিষ্ঠানটিতে ষষ্ঠ শ্রেণী হতে  দশম শ্রেণি।শিক্ষার্থীদের জন্য  নবম- দশম শ্রেণির জেনারেল শাখায় ছাড়াও কারিগরি  শিক্ষারও ব্যাবস্হা রয়েছে যেমন ইলেক্ট্রিক্যাল ইলেক্ট্রনিকস ও  ড্রেস মেকিং  শিক্ষার ও সুযোগ রয়েছে। স্কুলের পাশাপাশি ১টি কলেজও রয়েছে যেখানে ২টি শাখা রয়েছে জেনারেল এবং বিএম শাখা। স্কুল এবং কলেজ মিলে মোট ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা ১২০০থেকে ১৪০০ জন। এ  প্রতিষ্ঠানটি বিগত ২০১৪ এবং ২০১৬ সালে এসএসসি ও  পরিক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে বিশেষ সাফল্য অর্জন করে স্কুলটিতে জেনারেল এবং ভোকেশনাল ২টি শাখা রয়েছে।  এর মধ্যে ২০১৭ এবং ২০১৮ সালে ২ টি শাখার এস,এস,সি  তে জেনারেলে শাখার পাশের হার ৯০%।এবং ভোকেশনাল শাখার পাশের হার ৬৪.২৮%। এবং  প্রতিষ্ঠানটির এইসএসসির  পাশের হার যথাক্রমে ১০০%।
বর্তমানে প্রধান শিক্ষক মোঃশরিফুল ইসলামের নেতৃত্বে ৩০ জন অভিজ্ঞ শিক্ষক – শিক্ষিকাদের সাথে নিয়ে পাঠদান করে যাই যাচ্ছেন।
বেগম হামিদা সিদ্দিক কলেজিয়েট স্কুলটি শিক্ষাসংস্কৃতির সম্প্রসারণে এক অনন্য দৃস্টান্ত।