২৫, নভেম্বর, ২০২০, বুধবার | | ৯ রবিউস সানি ১৪৪২

সিরাজগঞ্জে স্ত্রী হত্যা দায়ে স্বামী সহ ৪ ভাইয়ের ফাঁসি

আপডেট: জানুয়ারি ২২, ২০১৯

সিরাজগঞ্জে স্ত্রী হত্যা দায়ে স্বামী সহ ৪ ভাইয়ের ফাঁসি

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃআজ সিরাজগঞ্জে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক ফজলে
খোদা মোঃ নাজির চাঞ্চল্যকর গৃহবধু সুমি হত্যা মামলার দায়ে স্বামী সহ ৪ ভাইয়ের
মৃত্যু দন্ডাদেশ প্রদান করেন। দন্ড প্রাপ্ত আসামীরা হলেন স্বামী সুবির কুমার রায়,
ডাঃ সুশীল কুমার রায়, সুনীল কুমার রায়, মনোরঞ্জন কুমরা রায়।
জান যায়, ১৯৯৯ সালের সিরাজগঞ্জ শহরের মুজিব সড়কস্থ মৃত সতীশ চন্দ্র রায়ের
চতুর্থ পুত্র সুবির কুমার রায়ের সাথে টাঙ্গাইল শহরের শাহাপাড়ার গোবিনাধ
বিশ্বাসের কন্যা সুমি রানীর বিয়ে হয়। বিয়ের সময় দাবিকৃত ৫ লক্ষ টাকা
যৌতুক এর মধ্যে আড়াই লক্ষ টাকা পরিষদ করে। পরবর্তিতে আরোও ৫০ হাজার টাকা
প্রদান করা হয়। বাকি টাকার জন্য সুবির কুমার রায় ও তার পরিবারের সদস্যগন
সুমিকে নির্যাতন করত।
গত ১২-০১-২০০১ তারিখ সন্ধ্যায় পূনরায় সুবির ও তার পরিবারের সদস্য গন
যৌতুকের বাকি টাকার জন্য সুমিকে গলা টিপে ও মার পিট করে হত্যা করে। এ
ব্যাপারে মনরঞ্জন রায় সিরাজগঞ্জ সদর থানায় সুমি রানীর গলায় আত্বহত্যা করেছে
বলে মিথ্যা জিডি করে। ময়না তদন্তে সুমিকে হত্যা করা হয়েছে বলে রিপোরট
আসায় উক্ত থানার এস আই মনিরুল ইসলাম ১৫ জানুয়ারী ২০০১ তারিখে হত্যা
মামলা দায়ের করে। সুমির পিতা গোপিনাথ বিশ্বাস, সুবির ও তার পরিবারের
সদস্যদের বিরুদ্ধে সিরাজগঞ্জ সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করে। মামলা দায়ের এর পর
থেকে আসামীরা পলাতক রয়েছে বলে আদালত সূত্রে প্রকাশ।
বাদি পক্ষ্যে ১২ জন সাক্ষ্য প্রমান শেষে বিজ্ঞ বিচারক এ রায় প্রদান করেন। রাষ্ট্র পক্ষ্যে
মামলা পরিচলনা করেন নারী ও শিশু নির্যাতন আদালতের বিশেষ পিপি শেখ আব্দুল
হামিদ লাভলু, বিশেষ এপিপি আনোয়ার পারভেজ লিমন এবং আসামী পক্ষ্যে মামলা
পরিচালনা করেন রাষ্ট্র নিযুক্ত স্টেট ডিফেন্স এ্যাডঃ এস,এম জাহাঙ্গীর আলম।