২৯, সেপ্টেম্বর, ২০২০, মঙ্গলবার | | ১১ সফর ১৪৪২

নেত্রকোনার বারহাট্রায় ভাসুর হত্যায় গৃহবধু আটক

আপডেট: জানুয়ারি ২৭, ২০১৯

নেত্রকোনার বারহাট্রায় ভাসুর হত্যায় গৃহবধু আটক

আব্দুল নূর,নেত্রকোনা প্রতিনিধি: নেত্রকোনা জেলার  বারহাট্টা উপজেলায় জমি সংক্রান্ত বিরোধে আলেহা আক্তার (৪৯) নামে এক গৃহবধূ তার স্বামীর চাচাতো ভাই কামাল মিয়াকে (৬০) কুপিয়ে হত্যার দায়ে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

 কামাল ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মারা যান। এরআগে ওইদিন সকালে উপজেলার বাউসী ইউনিয়নের হারুলিয়া কটরপাড়া গ্রামে কামালকে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করা হয়।

রোববার (২৭ জানুয়ারি) সকালে বারহাট্টা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বদরুল আলম খান বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, শনিবার সকালে হারুলিয়া কটরপাড়া গ্রামে বাড়ি থেকে কিছুদূরে ফসলি জমিতে চাচাতো দুই ভাই (কামাল-রজব) জমি সংক্রান্ত বিরোধে ঝগড়ায় লিপ্ত হন। এরমধ্যে বিষয়টি টের পেয়ে রজবের স্ত্রী আলেহা বাড়ি থেকে বটি দা এনে ভাসুর কামালকে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেন।

পরে আহত অবস্থায় কামালকে বারহাট্টা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। দিনগত রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

এরআগে এ ঘটনায় শনিবার দুপুরে আলেহা ও তার স্বামী রজবসহ পাঁচজনকে আসামি করে নিহতের বড়ভাই শাবদিল বাদী হয়ে বারহাট্টা থানায় মামলা করেন। পরে অভিযান চালিয়ে রজব আলীর স্ত্রী আলেহাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেও জানান ওসি বদরুল আলম।