২২, এপ্রিল, ২০২১, বৃহস্পতিবার | | ১০ রমজান ১৪৪২

পটুয়াখালী পৌরসভার হিসাব রক্ষক শাহিনের অবৈধ সম্পদের পাহাড়

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৯

পটুয়াখালী পৌরসভার হিসাব রক্ষক শাহিনের অবৈধ সম্পদের পাহাড়

পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধি মোঃ সাইফুল ইসলাম
অবৈধ সম্পদ অর্জনের দায়ে পটুয়াখালী পৌরসভার হিসাব রক্ষক এসএম শাহিনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পটুয়াখালী দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) পটুয়াখালী দুদক কার্যালয়ের উপসহকারী পরিচালক মো. আরিফ হোসেন বাদী হয়ে সদর থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন।
শাহিনের বিরুদ্ধে মামলা হওয়ায় পৌরবাসীরা তাদের ব্যক্তিগত ফেসবুক ওয়ালে দুদক ও প্রশাসনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। এছাড়া পৌরবাসীরা বেশ কিছুদিন থেকে শাহিনের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ এনে লিফলেট বিতরন করেন।
অভিযুক্ত শাহিন পৌর কর্তৃপক্ষের কাছে ছুটির আবেদন করে বেশ কিছু ধরে গা ঢাকা দিয়েছেন।
দুদকের মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, পৌরসভার হিসাব রক্ষক এসএম শাহিনের কাছে ২ কোটি ৭৪ লাখ ৭৪ হাজার ৩৫০ টাকার সম্পদের যথাযথ প্রমাণ না পাওয়ায় অর্থাৎ অবৈধ সম্পদ অর্জনের দায়ে দুর্নীতি দমন আইন,২০০৪ এর ২৭(১) ধারার শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন। দুদকের অনুসন্ধাকালে রুপালী ও ইসলামী ব্যাংক থেকে ৮৫ লাখ এবং জীবন বীমা পলিসির কমিশন লোন বাবদ ৪৮ লাখ ৭৫ হাজার ৮৯০ টাকাসহ মোট ১ কোটি ৩৩ লাখ ৭৫ হাজার ৮৯০ থাকার ঋনের ঘটনা মিথ্যা বানোয়া বলে পরিলক্ষিত হয়।এছাড়াও ৬০ লাখ ৯৮ হাজার ৪৬০ টাকা যথাযথ উৎস না থাকা এবং ভাইয়ের কাছ থেকে ৮০ লাখ টাকা হেবামুলে প্রাপ্ত হওয়ার বিষয়ে তার ভাইয়ের আয়কর রিটার্নে প্রতিফলন না থাকায় অবৈধভাবে সম্পদ অর্জনের বিষয় পরিলক্ষিত হয়। প্রাথমিক ভাবে তার বিরুদ্ধে ২ কোটি ৭৪ লাখ ৭৪ হাজার ৩৫০ টাকা অবৈধ সম্পদের অভিযোগ পাওয়া গেছে।পটুয়াখালী দুর্নীতি দমন কমিশনের উপ-পরিচালক মো. মোজাহার আলী সরদার জানান, প্রাথমিকভাবে দুদকের অনুসন্ধানে পটুয়াখালী পৌরসভার হিসাব রক্ষক শাহিনের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের দায়ে মামলা দায়ের করা হয়েছে। বাকি কাজ নিয়মানুসারে সম্পন্ন হবে।’