৩, জুন, ২০২০, বুধবার | | ১১ শাওয়াল ১৪৪১

কালিহাতীতে শিশু ধর্ষণ ধর্ষকের পরিবারকে হত্যার হুমকি অতপর পরিবার গ্রাম ছাড়া

আপডেট: মার্চ ৩, ২০১৯

কালিহাতীতে শিশু ধর্ষণ ধর্ষকের পরিবারকে হত্যার হুমকি অতপর পরিবার গ্রাম ছাড়া

কালিহাতী(টাঙ্গাইল)প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে শিশু ধর্ষন মামলায় ধর্ষক জেল হাজতে থাকলেও তাদের স্বজনদের হুমকি-ধামকিতে ধর্ষিতার পরিবার  গ্রাম ছাড়া। স্থানীয় প্রভাবশালীদের মদদে তারা ধর্ষিতার মা আনজুয়ারা বেগম (২৫) কে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিলে তিনি তার মেয়ে (ধর্ষিতা) কে নিয়ে ঢাকায় একটি গার্মেন্টসে চাকুরি করে কোন রকমে জীবিকা নির্বাহ করছেন। উপজেলার মালতী গ্রামের রহিজ উদ্দিনের ছেলে বাবলু (৪৫), তোফাজ্জল (৩৫), তায়েব আলী (৪০), তায়েজ উদ্দিন (৪২), মৃত কালু শেখের ছেলে রহিজ উদ্দিন (৭৫), মোহম্মদ আলী (৬৫) ও শামছুল হক (৬০) বাদীকে মামলা তুলে নিতে বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিয়ে আসছে। 
এ বিষয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরী করেও কোন সুফল পাচ্ছে না ধর্ষিতা শিশুর পরিবার। উপরন্তু চিকিৎসা ব্যয় নির্বাহ করে সর্বস্ব হারিয়ে দিশেহারা এই হতদরিদ্র পরিবারটি। 
উল্লেখ্য গত বছরের ৪ঠা জুন টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার মালতী গ্রামের দিনমজুর আশরাফ আলীর ৭ বছরের মেয়ে স্থানীয় কদমতলী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩য় শ্রেণির ছাত্রী প্রতিবেশি তায়েজ উদ্দিনের বাড়ির আঙ্গিনায় খেলতে গেলে তার ছেলে মাহবুব (১৫) প্রলোভন দিয়ে ঘরের ভিতর ডেকে নিয়ে ঝাপটে ধরে জোরপূর্বক ধর্ষন করে।
এ ব্যাপারে ধর্ষিতার বাবা বাদী হয়ে কালিহাতী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে (নং- ১০, তাং- ০৯/০৬/১৮ইং) মামলা দায়ের করেন। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় শিশুটিকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করলে রোগীর অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য স্থানান্তর করা হয়। ধর্ষিতা ওই শিশুটি এখনও স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসেনি। 
ধর্ষিতার মা এ পরিস্থিতি থেকে পরিত্রাণ পেতে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন