২০, অক্টোবর, ২০২০, মঙ্গলবার | | ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

গ্রেফতার ও অবৈধ দোকান উচ্ছেদসহ দাবী পুরনের পর ক্লাসে ফিরেছে মেডিকেলের শিক্ষার্থীরা

আপডেট: মার্চ ৫, ২০১৯

গ্রেফতার ও অবৈধ দোকান উচ্ছেদসহ দাবী পুরনের পর ক্লাসে ফিরেছে মেডিকেলের শিক্ষার্থীরা

জামালপুর প্রতিনিধি : জামালপুর শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের তিন শিক্ষার্থীকে বহিরাগতদের হামলা মারধরের ঘটনায় অভিযুক্তদের গ্রেফতার ও মেডিকেলের সামনে অবৈধ দোকান উচ্ছেদসহ চারদফা দাবী পুরন হওয়ায় আন্দোলন ছেড়ে ক্লাসে ফিরেছে শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (৫মার্চ) সকালে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা এক প্রেসব্রিফিংয়ে জানিয়েছে, হামলাকারীদের গ্রেফতারসহ দাবী দাওয়া মেনে নেয়ায় আন্দোলনের সমাপ্তি ঘোষনা করে ক্লাসে ফিরে যাচ্ছি বলে জানালেন আন্দোলনের সমন্ধয়ক মাহমুদুল হাসান মিঠুন। তিনি আরো জানান, আমাদের মতো আর কোন শিক্ষার্থী যেন বহিরাগত সন্ত্রাসীদের হামলার শিকার না হয়।

শিক্ষার্থী মারধরের সঙ্গে জড়িত বাকী তিন আসামিকে গত সোমবার গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে জামালপুর শহরের পাথালিয়া এলাকার মোশারফ হোসেনের ছেলে ইউসুফ আলী (৩৫), বিপুল মিয়া (২২) ও রফিক মিয়া (৪৯) এবং একই এলাকার বুরহান আলী (২৩) গ্রেফতার করেছে সদর থানা পুলিশ। এর আগেও আরেক আসামী রফিকুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়েছিল বলে জানিয়েছে সদর থানার ওসি (তদন্ত) মো: রাশেদুল ইসলাম।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার রাতে শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের অস্থায়ী ক্যাম্পাসের পাশে হাসপাতালের সামনের সড়ক পার হওয়ার সময় ৩ মেডিকেলের ছাত্র বহিরাগত সন্ত্রাসী ও দোকানীদের হামলার শিকার হয়। ছাত্রদের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে ৪দিন ধরে আন্দোলন করে আসছে মেডিকেলের ছাত্র-ছাত্রীরা।