১৮, সেপ্টেম্বর, ২০২০, শুক্রবার | | ৩০ মুহররম ১৪৪২

যবিপ্রবি গ্রাজুয়েটরা চাকরি দেবে, চাকরি চাইবে না

আপডেট: মার্চ ৭, ২০১৯

যবিপ্রবি গ্রাজুয়েটরা চাকরি দেবে, চাকরি চাইবে না

মো:হাসানুজ্জামান, যবিপ্রবি:যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (যবিপ্রবি) ভিসি প্রফেসর ড. মো: আনোয়ার হোসেন বলেছেন, বাংলাদেশকে একটা জিনিসই পেছনের টেনে নেওয়ার জন্য দায়ী, সেটা হলো দুর্নীতি। তাই দুর্নীতি মুক্ত বাংলাদেশ গড়তে হবে। আমি নিজে দুর্নীতি করবো না। আপনারাও দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেবেন না। 

বৃহস্পতিবার সকালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ভাষণের স্মৃতি-বিজড়িত ৭ মার্চ উপলক্ষে যবিপ্রবি ক্যাম্পাসে আনন্দ শোভাযাত্রা শেষে বঙ্গবন্ধু একাডেমিক ভবনের নিচে আয়োজিত সংক্ষিপ্ত সমাবেশে প্রফেসর ড. মো: আনোয়ার হোসেন
এসব কথা বলেন। 

দুর্নীতি রোধের বিষয়ে প্রফেসর ড. মো: আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘আমাদের আজকের দিনের শপথ হোক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী, শিক্ষার্থীরা দুর্নীতি মুক্ত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে সকলে ঐক্যবদ্ধ থাকবো। আমি নিজে দুর্নীতি করবো না। আপনারাও দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেবেন না।

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়কে যে গবেষণা বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে এগিয়ে নেওয়ার স্বপ্ন দেখছি এবং আমাদের যে স্লোগান দিয়েছি আমাদের গ্রাজুয়েটরা চাকরি দেবে, চাকরি চাইবে না। এ লক্ষ্যে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়কে সামনের দিকে অগ্রসর করার জন্য যা করার দরকার সেটাই করবো। আজকে ৭ মার্চে ঘোষণা করছি, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সম্পূর্ণ দুর্নীতি মুক্ত হবে।
 
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের প্রেক্ষাপট তুলে ধরে প্রফেসর ড. মো: আনোয়ার হোসেন বলেন, ৭ মার্চেই তিনি স্বাধীনতার সকল দিক-নির্দেশনা দিয়ে যান। তিনি বুঝতে পেরেছিলেন আস্তে আস্তে আমরা একটি সশস্ত্র যুদ্ধের দিকে যাচ্ছি। যুদ্ধের মাধ্যমেই পাকিস্তানি বাহিনীকে পরাভূত করে এ দেশের মানুষকে স্বাধীন করতে হবে। প্রফেসর ড. মো: আনোয়ার হোসেন বলেন, ৭ মার্চেই আমাদের শপথ হোক আমরা ঐক্যবদ্ধ থাকবো, ঐক্যবদ্ধ থাকলেই আমাদের সমাজের চারিদিকে যে অন্যায়-অবিচার পরীলক্ষিত হচ্ছে তা দূরিভূত করতে পারবো। কারণ দুষ্টু লোক, অসামাজিক লোক যারা বাংলাদেশ গড়ার ক্ষেত্রে অন্তরায়; এমনকি অনেকে এমনভাবে সেজেছে যে বঙ্গবন্ধুর চেয়েও তারা বড় বঙ্গবন্ধু হয়ে গেছে।

আমরা যারা বঙ্গবন্ধুর সৈনিক, যারা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলায় বিশ্বাস করি, যারা জননেত্রীর শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নেওয়াকে বিশ্বাস করি, তাদের মনে রাখতে হবে আমাদের মধ্যে অনেক দুর্বৃত্ত ঢুকে গেছে, আমাদের মধ্যেও অনেক স্বাধীনতা বিরোধী ঢুকে গেছে। আমাদের মধ্যেও অনেক ঘুষখোর, দুর্নীতিবাজ ঢুকে গেছে। এই ঘুষখোর এবং দুর্নীতিবাজদের আমাদের প্রতিহত করতে হবে। এর আগে যশোর শহরস্থ বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ৭ মার্চের ভাষণের ঐতিহাসিক দিবস উপলক্ষে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. মো: আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে পক্ষ থেকে পুস্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

পরে যবিপ্রবি ক্যাম্পাসের প্রধান ফটকেও বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।  এ সময় উপস্থিত ছিলেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. মো: ইকবাল কবীর জাহিদ ও সাধারণ সম্পাদক ড. মো: নাজমুল হাসান, ফলিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন ড. মো: ওমর ফারুক, ব্যবসায় অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো: জিয়াউল আমিন, বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. বিপ্লব কুমার বিশ্বাস, এ্যাগ্রো প্রডাক্ট প্রসেসিং টেকনোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মৃত্যুঞ্জয় বিশ্বাস, ফিশারিজ অ্যান্ড মেরিন বায়োসায়েন্স বিভাগের প্রফেসর ড. মো: সিরাজুল ইসলাম, ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা দপ্তরের পরিচালক ড. মো: মীর মোশাররফ হোসেন, যবিপ্রবির রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো: আহসান হাবীব, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো: আব্দুর রশীদ, প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা দীপক কুমার মন্ডল, গ্রন্থাগারিক মোহা. আমিনুল হক, কর্মচারী সমিতির সাধারণ সম্পাদক কে এম আরিফুজ্জামান সোহাগ প্রমুখ