২৩, জানুয়ারী, ২০২১, শনিবার | | ৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ডিমলায় যৌতুক না পেয়ে গৃহবধুকে নির্যাতন

আপডেট: মার্চ ১২, ২০১৯

ডিমলায় যৌতুক না পেয়ে গৃহবধুকে নির্যাতন

নুরনবী ইসলাম মানিক, ডিমলা (নীলফামারী) প্রতিনিধি:ডিমলায় যৌতুকের টাকা না পেয়ে স্বামীর পরিবারের সদস্যদের নির্যাতনের কারনে সোমবার ভোরে ৫মাসের অন্ত:সত্ত্বা এক গৃহবধূর গর্ভপাতের ঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, পঞ্চগড় জেলার বোদা উপজেলার তিতো পাড়া গ্রামের আব্দুল হাই এর কন্যা চম্পা আক্তার সাথী (২৫) কে গত ২০১৭ সালে নীলফামারী জেলার ডিমলা উপজেলার ঝুনাগাছ চাপানি ইউনিয়নের দক্ষিন সোনাখলি গ্রামের আমিনুর রহমানের পুত্র নাজমুল হুদা (২৭) প্রেম ঘটিত কারণে রংপুর জজ কোটের নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে বিয়ে করে। এরপর নাজমুল সাথীকে স্ত্রীর পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন স্থানে বাসা ভাড়া নিয়ে থাকত। এ ভাবে নাজমুল দীর্ঘদিন সাথীর সাথে দৈহিক মেলামেশার একপর্যায়ে সাথী ৫মাসের গর্ভবর্তী হয়ে পরে। গত বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় সাথী তার স্বামী নাজমুল হুদার বাড়ীতে গেলে তার কাছ থেকে ৭লক্ষ টাকা যৌতুক দাবী করা হলে সাথী দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে নাজমুল সহ তার পিতা আমিনুর রহমান, মাতা নাজলি বেগম সহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা মিলে সাথীকে বেধরক মারপিট করে বাড়ী হতে বের করে দেয়। সাথীকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় ঘটনাস্থল হতে এলাকাবাসী উদ্ধার করে ওই রাতেই ডিমলা হাসপাতালে ভর্তি করে। স্বামী পরিবারের নির্যাতনের কারণে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সাথীর যৌনপথ দিয়ে অতিরিক্ত রক্তক্ষরন হয়। এর একপর্যায়ে সোমবার ভোর ৫টায় চম্পা আক্তার সাথীর গর্ভপাত ঘটে। এ ব্যাপারে চম্পা আক্তার সাথী বাদী হয়ে ডিমলা থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করছে।

ডিমলা থানার ওসি মফিজ উদ্দিন শেখ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।