৮, ডিসেম্বর, ২০১৯, রোববার | | ১০ রবিউস সানি ১৪৪১

রংপুরে রোভার স্কাউট গ্রুপ ও সদস্যের উপর বখাটের হামলা

আপডেট: অক্টোবর ৩০, ২০১৮

রংপুরে রোভার স্কাউট গ্রুপ ও সদস্যের উপর বখাটের হামলা

এম আর এইচ সুমন, রংপুর প্রতিনিধি : রংপুর নগরীর ২৩ নং ওয়ার্ডের সুইপার কলোনী সংলগ্ন নিউ জুম্মাপাড়া ভাট্টাপাড়া এলাকার জিয়া ও কুলসুমের একমাত্র পুত্র বখাটে ফয়সালের অত্যাচারের দূর্ভোগে রংপুর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট এর আবাসিক এলাকা সহ সাধারন শিক্ষার্থী ও শিক্ষক-কর্মচারীরা।

জানা যায় ফয়সাল নামের বখাটে ছেলেটি ইন্সটিটিউটের বহিরাগত হওয়া সত্যেও সারাদিন রাত রপই ক্যাম্পাসে অবস্থান করে, শুধু অবস্থানই নয় ইন্সটিটিউটের শাহজাহান কবির ছাত্রাবাসে কোনো এক মহলের আত্মীয়তায় গভীর রাত্রি পর্যন্ত অবস্থান করে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষক জানায় বহিরাগত এই বখাটে ফয়সালকে ইন্সটিটিউট ক্যাম্পাস ত্যাগ করা কথা বলা হলে সে শিক্ষক ও কর্মচারীদের চাপাতি কিংবা ধারলো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে মারপিট ও হত্যা করার হুমকি দেয়, শুধু তাই নয় শিক্ষক ও কর্মচারীদের সরাসরি অশ্লীল ভাষায় গালাগলি করে সম্মানহানী করছে। কয়েকদিন আগে শাহজাহান কবির ছাত্রাবাসের কিছু সাধারন শিক্ষার্থীদের মারপিট করতে ক্ষেপে উঠে এবং তাদের নানাভাবে হেনস্থ করে কিন্তু শাহজাহান কবির ছাত্রাবাসে অবস্থানরত সাধারন শিক্ষার্থীরা কোনো এক মহলের চাপের মুখে তা মেনে নিতে বাধ্য হয়।
সাম্প্রতি ২৯ অক্টোবর সোমবার কোনো কারণ ছাড়াই অযৌক্তিকভাবে ইন্সটিটিউটের রোভার স্কাউট গ্রুপের প্রোগ্রাম চলাকালীন সময়ে সক্রিয় এক রোভার স্কাউট সদস্যদের হামলা করে বেধারক মারপিট করে এবং রোভারিং কার্যক্রমে বাধাঁ প্রদান করে ইন্সটিটিউটের রোভার স্কাউটিং কার্যক্রম বন্ধের হুমকি দেয় সেই সাথে রোভার স্কাউট লিডার ও রোভার স্কাউটিং কে উদ্দেশ্য কর অশ্লীল ভাষায় গালাগালি করে । বখাটে ফয়সাল ও তার সঙ্গীদের হামলার শিকার হওয়া রোভার স্কাউট সদস্য শারিরিকভাবে খুবই ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।
বখাটে ফয়সাল ও তার সঙ্গীরা ইন্সটিটিউটের অধ্যনরত শিক্ষার্থীদের উত্যক্ত করণ সহ ইন্সটিটিউট ক্যাম্পাসে বিভিন্ন ধরনের অরাজকতা ও অনৈতিক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়তই। ইন্সটিটিউট এর কোনো এক মহলের চাপে পড়ে বখাটে ফয়সালের অত্যাচার মুখবুজে সহ্য করে নিতে হচ্ছে ইন্সটিটিউটের শিক্ষক,কর্মচারী ও শিক্ষার্থীদের।
রংপুর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট এর শিক্ষক,কর্মচারী ও শিক্ষার্থী পরিবার বখাটে ফয়সাল ও তার সঙ্গীদের হাত থেকে পরিত্রান পেতে চায়।এজন্য রংপু মহানগরীর প্রশাসন সমুহের দ্রুত হস্তখেপ কামনা করেন ভুক্তভোগী সকলেই।