২৬, জানুয়ারী, ২০২১, মঙ্গলবার | | ১২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ফুলবাড়ীয়ায় কালভার্টের মুখ বন্ধ করে মাছ চাষ করার অভিযোগ প্রভাবশালীর

আপডেট: মার্চ ১৭, ২০১৯

ফুলবাড়ীয়ায় কালভার্টের মুখ বন্ধ করে মাছ চাষ করার অভিযোগ প্রভাবশালীর

মোঃ হাবিবুল্লাহ হাবিব, ফুলবাড়ীয়া (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ঃ ফুলবাড়ীয়া উপজেলার বাক্তা ইউনিয়নে সরকারি কালভার্টের মুখ বালির বস্তা দিয়ে বন্ধ করে মাছ চাষ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে স্থানীয় প্রভাবশালী মোফাজ্জল হোসেন ওরফে মিন্টু মাস্টারের বিরুদ্ধে।

এতে প্রায় ২০একর জমিতে বোরো ফসলের ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতির আশংকা দেখা দিয়েছে। নিরসন চেয়ে স্থানীয় প্রভাবশালী মোফাজ্জল হোসেন ওরফে মিন্টু মাস্টারের বিরুদ্ধে গত ১৪ মার্চ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর নিকট লিখিত অভিযোগ করেছেন কৃষকরা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, তালতলী টু শ্রীপুর রাস্তার মিন্টু মাস্টারের ফিসারী সংলগ্ন কালভার্টটি মুখ বন্ধ রয়েছে। মোফাজ্জল হোসেন প্রতি বছরই এভাবে পানি নিষ্কাশন একমাত্র কালভার্টের মুখ বন্ধ করে দিয়ে সে মৎস চাষ করে।

কৃষক আঃ খালেক বলেন, এ ব্যাপারে ইতিপূর্বেও একাধিকবার স্থানীয় চেয়ারম্যান ফজলুল হক মাখন সাহেবের নিকট অভিযোগ দিলে তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে কালভার্টের মুখটি মিন্টু মাস্টারকে খুলে দিতে বললেও কর্ণপাত করেননি স্থানীয় প্রভাবশালী মোফাজ্জল হোসেন ওরফে মিন্টু মাস্টার।

অপর ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক হাবিবুর রহমান বলেন, পানি নিষ্কাশন না হওয়ায় আমার ৬কাঠা জমির বোরো ফসলসহ গ্রামের বহু কৃষকের জমির ফসল তলিয়ে যাচ্ছে। আমরা নিরুপায় হয়ে প্রশাসনের নিকট অভিযোগ দাখিল করেছি, প্রশাসন যদি এ বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে আমাদের ফসল নষ্ট হয়ে যাবে। আরো জানান,

মোফাজ্জল হোসেন মিন্টু মাস্টার বলেন, সাময়িক সময়ের জন্য আমি কালভার্টির মুখ বন্ধ করেছি। আজ-কালের মধ্যেই খুলে দিব। এ ব্যাপারে পত্র-পত্রিকায় লেখা-লেখির দরকার নাই।  

এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মুহাম্মদ ফজলুল হক মাখনের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তাঁর মোবাইলটি বন্ধ পাওয়া যায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার লীরা তরফদার বলেন, অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।